পাপিয়া দম্পতি ফের ১৫ দিনের রিমান্ডে

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাল টাকা উদ্ধার, অস্ত্র ও মাদকের পৃথক তিন মামলায় নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক শামীমা নূর পাপিয়া ও তার স্বামী মফিজুর রহমান প্রত্যেকের ফের ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বুধবার দুপুরে পা‌পিয়া ও তার স্বামীকে আদাল‌তে হা‌জির ক‌রা হয়। এসময় বিমানবন্দর থানার এক‌টি ও শে‌রে বাংলানগর থানার দ‌ু‌টি মামলায় ফের ৩০ দি‌নের রিমান্ড চাওয়া হয়।

শুনা‌নি শে‌ষে বিমানবন্দর থানার মামলায় মহানগর হাকিম দেবব্রত বিশ্বাস পাঁচ দি‌ন এবং শে‌রেবাংলানগর থানার দুই মামলার জন্য মহানগর হাকিম সারাফুজ্জামান আনছারী ১০ দি‌নের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ড শুনানির আগে পাপিয়া ও তার স্বামী মফিজুরকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করা হয়।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি গোপনে দেশত্যাগের সময় শামিমা নূর পাপিয়াকে তিন সহযোগীসহ গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। তার বিরুদ্ধে অবৈধ অস্ত্র ও মাদকের ব্যবসা, অর্থ পাচারসহ অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ রয়েছে।

সেদিনই রাজধানীর ফার্মগেটে ইন্দিরা রোডে পাপিয়ার বাসায় অভিযান চালিয়ে ১টি বিদেশি পিস্তল, ২টি ম্যাগাজিন, ২০ রাউন্ড গুলি, ৫ বোতল বিদেশি মদ, ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা, ৫টি পাসপোর্ট, ৩টি চেক, বেশকিছু বিদেশি মুদ্রা ও বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি এটিএম কার্ড উদ্ধার করা হয়।

সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, পতিতা ব্যবসার পাশাপাশি ব্ল্যাকমেইল করে পাপিয়া ও তার স্বামী গড়ে তুলেছেন সম্পদের পাহাড়। অনৈতিক কার্যকলাপের ভিডিও ধারণ করে ধনাঢ্য ব্যক্তিদের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নিতেন তারা। অপরাধে জড়িয়ে পড়া পাপিয়াকে ইতোমধ্যে সংগঠন থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। ক্ষমতাসীন দলের নেতারা বলছেন- পাপিয়ার পাপের শাস্তি তাকে বহিষ্কারের মধ্যেই সীমিত থাকবে না। তার বিচার রাজনৈতিক পরিচয়ে নয়, হবে অপরাধ বিবেচনায়।