পার্বতীপুরে তৃতীয় লিঙ্গের জমির ধান কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষ

প্রকাশিত

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিরাজপুরের পার্বতীপুরে মনমথপুর ইউনিয়নের খোড়াখাই সর্দারপাড়া গ্রামে ফজিলা মন্ডল নামে এক তৃতীয় লিঙ্গের জমির ধান কেটে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রবিবার বিকেলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে ফজিলার ভাই মতিউর মন্ডল ও তার স্ত্রী গুরুতর অাহত হয়ে পার্বতীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর ২জানুয়ারী একই এলাকার মৃত অাব্দুল হামিদ সরদারের ছেলে অাদিল বাবুর নিকট ১লাখ ৮০ হাজার টাকায় ৬৩শতাংশ জমি বন্ধক নেন ফজিলা। গত ২৩ মে অাইজুদ্দীনের ছেলে মোঃ অালা (৪৪) এর নেতৃত্বে ২৮ জন শ্রমিক ফজিলার জমির অাধাপাকা অর্ধলক্ষাধিক টাকার ধান কেটে নিয়ে যায়। অবৈধভাবে ধান কেটে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় ওই ২৮ ব্যক্তির নাম উল্লেখ করের পার্বতীপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন (মামলা নম্বর ৩০, তারিখ- ২৮/০৫/২০)।

এদিকে, ধান কাটাটার বিষয়ে অভিযুক্ত মোঃ বাবু হোসেন বলেন, তাদের বন্ধক নেয়া জমির ধান কৃষি শ্রমিক দিয়ে কেটে ধান কেটেছেন।

এ ব্যাপারে পার্বতীপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোখলেছুর রহমান মামলার বিষয়ে নিশ্চত করে বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ উভয়পক্ষের মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে অাসছে।