বিভাগ - সারাদেশ

পূর্ব শক্রতার কারণেই রাতে শিম ক্ষেত কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা

প্রকাশিত

মঈনুল হাসান রতন হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের সম্ভুপুর গ্রামের এক কৃষকের প্রায় ২৫ শতক জমির শিম গাছ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। কৃষক ঐ গ্রামের মো. মিরাশ উল্লার পুত্র আউলাদ মিয়া। এতে অন্তত ৩-৪ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি ।মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) সকালে শিম ক্ষেতে গিয়ে গাছ কাটা দেখতে পান কৃষক আউলাদ মিয়া।ভুক্তভোগী কৃষক মো. আউলাদ মিয়া জানান, তার বসত বাড়ি সংলগ্ন প্রায় ২৫-২৬ শতক জমিতে শিমের চাষ করেছেন। ২০-২৫ দিন যাবত উৎপাদিত শিম বাজারজাত করে চলেছেন তিনি। গাছে প্রচুর পরিমাণে শিম ধরতে শুরুও করেছিল। ফুলে ফুলে ভরে গিয়েছিলো গোটা ক্ষেত। এখন প্রতিদিন গড়ে ১৫০ থেকে ২০০ কেজি শিম গাছ থেকে সংগ্রহ করতে শুরু করেছিলেন। আর ৫-৭ দিনের মধ্যে পুরোদমে শিম বিক্রি করা যেতো। তখন প্রতিদিন ৪-৫শত কেজি শিম সংগ্রহ করতে পারতেন বলে তিনি জানান।তিনি আরও জানান, শিম চাষে এই পর্যন্ত তাকে ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা ব্যয় করতে হয়েছে। ফলন অনুযায়ী চার থেকে পাঁচ লাখ টাকার শিম বিক্রির টার্গেট ছিল। এ বছর শিমের বাজার বেশ ভাল, এখনও স্থানীয় বাজারে ৫০-৬০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে শিম। ফলনও হয়েছিল বাম্পার। কিন্তু সেই আশা আর পূরণ হতে দিল না দুর্বৃত্তরা। গত সোমবার রাতের আধারে কোনো এক সময় তার শিম ক্ষেতের সব গাছ কেটে সাবাড় করে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।পূর্ব শক্রতার কারণেই রাতে শিম ক্ষেত কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। সন্দেহের দৃষ্টিতে যারা রয়েছে তারাই কাটতে পারে বলে কৃষক আউলাদ মিয়ার ধারণা। তিনি মামলার প্রস্তুতি নিয়েছেন। এলাকার মুরুব্বিদের সাথে পরামর্শ করে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে তিনি জানানএ ব্যাপারে পুটিজুরী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. শামছুদ্দিন আহমেদ জানান, খবর শুনে শিম ক্ষেত পরিদর্শন করেছি। তার অনেক বড় ক্ষতি হয়েছে। তবে কারা এর সাথে জড়িত সেটি এখনও জানা যায়নি।

এছাড়া পুটিজুরী তদন্ত কেন্দ্রের একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।