বগুড়ার শিবগঞ্জ থানায় ঢুকে আসামি ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা মামলা দায়ের, গ্রেফতার ৪

প্রকাশিত

শিবগঞ্জ ( বগুড়া) সংবাদদাতাঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ থানায় ঢুকে পুলিশকে মারধর করে গ্রেফতারকৃত তিনজন আসামী ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ গ্রেফতারকৃত তিনজনসহ চারজনকে আটক করে বিজ্ঞ অাদালতে সোপর্দ করেছে। আসামী করা হয়েছে
স্থানীয় আরও বেশ কয়েকজনকে।

২৭ মে বুধবার সন্ধ্যায় জেলার শিবগঞ্জ থানায় এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভেতরের আম ও কাঁঠাল গাছ থেকে ফল চুরির অভিযোগে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

ডায়েরির সূত্র ধরে বুধবার বিকেলে শিবগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তদন্তে যান। তিনি সেখান থেকে ফিরে আসেন। পুলিশ তদন্তে আসার খবর পেয়ে কালিপড়া গ্রামের লোকজন হাসপাতালের দেয়াল টপকে ভিতরে প্রবেশ করে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার বাসভবনে হামলা চালায়। এ অভিযোগ পেয়ে পুলিশ আবারো হাসপাতালে ফিরে গেলে পূবালী ব্যাংক কর্মকর্তা মুহিত ও আশে পাশের গ্রামের অর্ধশত নারী পুরুষ পুলিশকে ঘেরাও করে রাখে। পরে থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করে এবং মুহিত (৩৪), হাফিজার (৩০) ও হারুনার রশিদ (৩০) নামে তিনজনকে আটক করে থানায় আনে। গ্রেফতারকৃতদের থানায় এনে মারধর করা হচ্ছে, এমন খবর পেয়ে মুহিতের বাবা তছকিন স্থানীয় বেশ কয়েকজনকে নিয়প থানায় জোরপূর্বক প্রবেশ করে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের মারপিট করে আটককৃত আসামীদের ছিনিয়ে আনার চেষ্টা করে। পরে পুলিশ তছকিনকেও আটক করে। এ সময় অন্য আসামীরা পালিয়ে যায়।

শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান পুলিশ সদস্যকে মারপিটের কথা স্বীকার করে জানান, আটকদের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার তাদের পুলিশ স্কটের মাধ্যমে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।