বিভাগ - সারাদেশ

বঙ্গবন্ধু’র কথা বলতেই ক্ষেপে গেলেন শিক্ষা অফিসার সাংবাদিকে অপমান

প্রকাশিত

মোস্তাফিজুর রহমান লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ স্কুল টিফিনের সময় প্রধান শিক্ষকের অনুমতি সাপেক্ষে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সাথে মুজিববর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর বিষয়ে কথা বলার সময় লালমনিরহাটের প্রবীণ সাংবাদিক শেখ আব্দুল আলিমের সাথে অসদাচরণ করা হয়। উপজেলা শিক্ষা অফিসার জাকির হোসেনের সামনেই এ ঘটনাটি ঘটিয়েছেন সহকারী শিক্ষা অফিসার যোগেন্দ্র নাথ সেন। এ ঘটনায় জেলায় কর্মরত সকল সাংবাদিক তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

সোমবার (২৮ জানুয়ারী) লালমনিরহাটের কালীগঞ্জের দলগ্রাম ইউনিয়নের কৃষ্ণকিশোর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। শেখ আব্দুল আলিম দৈনিক মানব জমিন পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি ও কালীগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।

জানাগেছে, প্রবীণ সাংবাদিক শেখ আব্দুল আলিম মুজিববর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর কথা বলতে প্রতিদিন উপজেলার স্কুলে গুলোতে যান। সোমবার দুপুরে কৃষ্ণকিশোর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি মুজিববর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর বিষয়ে প্রধান শিক্ষকের অনুমতি নিয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলছিলেন তিনি। এর কিছুক্ষণ পরেই উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও সহকারী শিক্ষা অফিসার স্কুল পরিদর্শনে যান। সহকারী শিক্ষা অফিসার যোগেন্দ্র নাথ সেন কোমলমতি শিক্ষার্থীদের বঙ্গবন্ধুর বিষয়ে কথা বলতে নিষেধ করে। ওই সময় সাংবাদিকের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। তিনি কৈফিয়ৎ তলবের ভঙ্গিতে সাংবাদিককে বলেন, ‘লেখাপড়ার সময় ডিস্টার্ব করাতো ঠিক হচ্ছেনা!’

সাংবাদিক আলীম জানান, মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধান শিক্ষকের অনুমতিসাপেক্ষে তিনি টিফিনের সময় শিক্ষার্থীদের সাথে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ নিয়ে কথা বলছিলেন। এটি মনে করিয়ে দিলেও উপজেলা শিক্ষা অফিসার জাকির হোসেন বলে উঠেন, ‘এখানে এসব কেন? এসব কি হচ্ছে?’ বঙ্গবন্ধু কি? তার বিষয় কথা বলতে হবে।

মুজিববর্ষে শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে কথা বলার সময় সংঘটিত উপজেলা শিক্ষা অফিসারের এই অসৌজন্য আচরনে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা এসময় হতবিহ্বল হয়ে পড়েন। বিষয়টি জানতে চাইলে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক ভোলানাথ রায় ‘ব্যস্ত আছি’ বলে ফোন কেটে দেন।

শিক্ষা অফিসারের এই অসদাচারনের বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রবিউল হাসানকে জানালে তিনি বিষয়টি ‘দেখবেন’ বলে জানান।

এদিকে প্রবীণ সাংবাদিকের সাথে এমন আচরণে সচেতন মহলে জেলাজুড়ে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এ ঘটনায় বাংলাদেশ জেলা ও উপজেলায় কর্মরত সকল সাংবাদিক তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ও তদন্তসাপেক্ষে বিচার দাবী করেছেন।