বিভাগ - খেলাধুলা

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দর্শকদের জন্য সীমিত টিকেট

প্রকাশিত

ক্রীড়া প্রতিবেদক: আগামী রোববার জমকালো আয়োজনে বিপিএলের সপ্তম আসরের উদ্বোধন করা হবে। থাকবে বাংলাদেশ ও বলিউড তারকাদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, হবে লেজার শো। কিন্তু এসব আয়োজন গ্যালারিতে বসে উপভোগ করার সুযোগ পাবেন খুব কম দর্শক।

মঞ্চের অবস্থানের কারণে সব গ্যালারিতে বসার ব্যবস্থাই করা যাচ্ছে না। মঙ্গলবার আয়োজনের সার্বিক পরিস্থিতি ঘুরে দেখে বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান জানান, মাত্র ৮ হাজার মানুষের বসার ব্যবস্থা করতে পারছে তারা। এরমধ্যেও আছে সৌজন্য টিকেটের চাপ। সাধারণ দর্শকদের জন্য তাই বরাদ্দ থাকছে কেবল পাঁচ হাজার টিকেট।

মঙ্গলবার বিকেলে বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি দেখতে আসেন বোর্ড প্রধান। আয়োজনের সব কিছু ঠিক থাকলেও নানান সীমাবদ্ধতার কারণে খুব বেশি দর্শককে জায়গা দিতে না পারার কথা জানান তিনি, ‘যেহেতু সব ভিউ নেই (মঞ্চ দেখার)। তাই খুব অল্প সংখ্যক দর্শক আমরা এলাউ করতে পারব। সমস্যাটা হচ্ছে পেছনেও দিতে পারছি না, পাশেও দিতে পারছি না। তাহলে আর কতজনকে জায়গা দিতে পারছি। কতগুলো টিকেট দিতে পারছি সেটা নিয়ে একটা বড় প্রশ্ন। কারণ আমাদের প্রাথমিক যে ধারনা ছিল তার চেয়ে অনেক কমে গেছে। আমাদের হিসেব অনুযায়ী ৮ হাজারের বেশি হবে না। সব মিলিয়ে।’

এই ৮ হাজার টিকেটের উপরও আছে অনেকের ভাগ। বিসিবির কাউন্সিলরা আছেন , প্রতিটি ক্লাবে আছে টিকেটের কোটা। টিকেট দেওয়া হয় আইনশৃঙ্খলায় নিয়োজিত বিভিন্ন সংস্থাকেও। সব কিছু বাদ দিয়ে তাই কেবল সাধারণ দর্শকদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখার সুযোগ আরও কম, ‘সমস্যা হচ্ছে আমাদের কাউন্সিলরদের দিতে হবে, ক্লাবগুলো আছে ওদের দিতে হবে। অনেক জায়গা সংকোচিত হয়ে গেছে। বেশ কিছু সংস্থা আছে যাদের সঙ্গে আমাদের ওতপ্রোতভাবে জড়িত। সব মিলিয়ে চিন্তা করেছি হাজার পাঁচেক টিকেট হয়ত সাধারণ দর্শকদের জন্য দিতে পারি।’

গ্যালারি ছাড়াও মূল মাঠে ভিভিআইপিদের জন্য হাজার খানেক চেয়ারের ব্যবস্থা রাখার কথাও জানান বিসিবি প্রধান। তবে টিকেটের মূল্য এবং বিস্তারিত সব কিছু আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে বুধবার।