বিভাগ - সারাদেশ

বরিশালে এশিয়ান টিভির ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ: বরিশালে স্যাটেলাইটভিত্তিক এশিয়ান টেলিভিশন ও এশিয়ান এফ রেডিওর ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। বরিশাল অফিসের আয়োজনে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম বার। এসময় তিনি বলেন, এশিয়ান টেলিভিশন বিনোদন এবং সংবাদ পরিবেশনে বিশেষ স্বকীয়তা ধারণ করে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এশিয়ান টিভি আরো দায়িত্বশীল ভূমিকা প্রদান করে সাফল্য অজর্ন করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। আলোচনা শেষে অতিথিরা কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন করেন এবং মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। বরিশাল টেলিভিশন মিডিয়া এসোসিয়েশনের সভাপতি হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন ও বক্তব্য রাখেন প্রশান্ত কুমার দাস, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি), বরিশাল প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি এস এম ইকবাল, বরিশাল মেট্রোপলিটন প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সহ-সভাপতি এম আর প্রিন্স, বরিশাল বিসিকের উপ-পরিচালক জালিছ মাহমুদ, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইকিউএ সেলের সহকারী পরিচালক ও সাংবাদিক আরাফাত শাহরিয়ার, একাত্তর টেলিভিশনের বরিশাল প্রধান বিধান সরকার, সমাজ সেবা অধিদপ্তরের জেলা প্রবেশন কর্মকর্তা সাজ্জাদ পারভেজ, বরিশাল চেম্বার অফ কমার্সের পরিচালক আক্তার হোসেন, বরিশাল নিউজ এডিটরস কাউন্সিলের সভাপতি হাসিবুল ইসলাম, ইয়ুথনেট ফর ক্লাইমেট জাস্টিসের শাকিলা ইসলাম, বাংলাদেশ মডেল ইয়ুথ পার্লামেন্টের পরিচালক সাব্বির হোসেন নবীন, মুশফিক সৌরভ, রাসেল হোসেন প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন এশিয়ান টেলিভিশনের বরিশাল প্রতিনিধি মোঃ আমিনুল ইসলাম (ফিরোজ মোস্তফা) এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলাদেশ মডেল ইয়ুথ পার্লামেন্ট’র নির্বাহী প্রধান সোহানুর রহমান। আলোচনায় অংশ নিয়ে বরিশালে কর্মরত সাংবাদিক ও তাদের সংস্থার নেতৃবৃন্দ দেশে মুক্ত গণমাধ্যমের বিকাশে সরকারী পৃষ্ঠপোষকতা এবং রাজনৈতিক অঙ্গীকারের দাবি জানিয়েছেন । তারা মনে করছেন, গণমাধ্যম বিকশিত হলে দেশের গণতন্ত্র আরো সুসংহত হবে এবং সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখবে। মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখতে এবং টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে গণমাধ্যম এবং সাংবাদিকদের রাষ্ট্রীয় সহযোগিতা একান্ত আবশ্যক বলে বক্তারা উল্লেখ করেন।