বিভাগ - খেলাধুলা

বাংলাদেশকে হারিয়ে শিরোপা জিতলো পাকিস্তান

প্রকাশিত

স্পোর্টস ডেস্ক: পুরো টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত খেলেছিল বাংলাদেশ। কোন দলই পাত্তাই পায়নি টাইগারদের কাছে। সেই বাংলাদেশ ফাইনালে হেরে গেল পাকিস্তানের কাছে। বিষর্জন দিতে হল শিরোপার। ইমার্জিং এশিয়া কাপের ফাইনালে আজ মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ এবং পাকিস্তান। শিরোপার লড়াইয়ের এই ম্যাচে বাংলাদেশকে ৭৭ রানে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে পাকিস্তান।

ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে ৩০১ রানের বিশাল সংগ্রহ দাড় করেছিল পাকিস্তান। ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়েছিল পাকিস্তান। সুমন খানের বলে ওপেনার ওমাইর ইউসূফ আউট হয়েছেন ৪ রান করে।

দলীয় ১৮ রানের মাথায় ইউসূফ আউট হওয়ার পর ঝড়ো ব্যাটিংয়ে পাল্টা আক্রমন করেন আরেক ওপেনার হায়দার আলী খান। তবে তাকেও থামায় সুমন খান। ২৬ রান করে দলীয় ৪১ রানের মাথায় আউট হন তিনি।

এরপর পাল্টা প্রতিরোধ পাকিস্তানের। ১১০ রানের জুটি গড়েন পাকিস্তানের দুই তারকা রোহাইল ও ইরফান। ইরফান ৬২ রান করে আউট হলে ভাঙে এই জুটি।তবে ইরফান আউট হলেও সেঞ্চুরি করেছেন রোহাইল। ১১৩ রান করে তিনি অবশেষে আউট হয়েছেন হাসান মাহমুদের বলে।

সাদ সাকিল ৪০ বলে ৪২ এব খুশদিল শাহ ১৬ বলে ২৭ রান করলে পাকিস্তানের রান ৩০০ পেড়িয়ে যায়।এই রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ঝড় তুলেছিলেন সৌম্য সরকার। মাত্র ৬ বলেই করেন ১৫ রান। ২টি চার এবং একটি ছক্কা মারেন তিনি। এরপর আউট হন নাঈম শেখ। তিনি করেন ১৬ রান। ৪১ রানে পতন হয় দ্বিতীয় উইকেটের।

এই দুই জনের পর শান্ত ও ইয়াসির আলী মিলে দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন। তবে ৩১ বলে ২২ রান করে দলীয় ৯২ রানের মাথায় আউট ইয়াসির আউট হলে ভাঙে এই জুটি। ইয়াসিরের পর অর্ধশতক হাতছাড়া করে বিদায় নেয় শান্ত। তিনি আউট হন ৪৬ রান করে। শান্তর পর দ্রুতই ফিরে যান জাকির (৯) ও অ্যাকন (৫)।

এদের বিদায়ের পর বাংলাদেশের হাল ধরেছিলেন আফিফ ও মেহেদী হাসান। দুজনে মিলে গড়েছেন ৪৮ রানের জুটি। তবে দুর্দান্ত খেলতে থাকা আফিফ ৪৯ রান করে দারুণ এক শট খেলেছিলেন। কিন্তু আরও দুর্দান্ত এক ক্যাচ ধরে তাকে বিদায় করেন পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা।

আফিফের বিদায়ের পর আর টিকতে পারেনি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। ২০৯ রানের মাথায় সুমন খান এবং ২১৮ রানের মাথায় ৪২ রান করা মেহেদী হাসান আউট হলে পরাজয় নিশ্চিত হয়ে যায়। সেটাই পূর্ণতা পায় হাসান মাহমুদের আউটের মধ্য দিয়ে।