বাজেট অধিবেশনে ১৪৪ ধারা জারি হচ্ছে সংসদ এলাকায়

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলমান একাদশ জাতীয় সংসদের আসন্ন বাজেট অধিবেশন (২০২০-২১ অর্থবছরের) উপলক্ষে সংসদ ভবন এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি হচ্ছে। এর মাধ্যমে সংসদ ভবন ও আশপাশের এলাকায় যে কোনো ধরনের সভা-সমাবেশ, মিছিল, শোভাযাত্রা ও বিক্ষোভ প্রদর্শনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। ১০ জুন অধিবেশন শুরুর তিন দিন আগে থেকে এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ হবে।

আজ বৃহস্পতিবার (৪ জুন) সংসদ ভবনে বাজেট অধিবেশনের প্রস্তুতিমূলক বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়। করোনাভাইরাস মোকাবিলা ও নিরাপত্তা বিষয়ক আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে করণীয় ঠিক করতে সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খানের সভাপতিত্ব বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ডিএমপির প্রতিনিধি, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধি, সংসদের সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গণপূর্ত বিভাগের প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, ১৪৪ ধারা জারির সিদ্ধান্তের পাশাপাশি বাজেট অধিবেশনে মন্ত্রী-এমপিদের সঙ্গে পিএস বা এপিএসকে না নিয়ে আসা কিংবা কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ব্যক্তিকে গাড়িতে বহন না করার জন্য অনুরোধ জানানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আগামী ১০ জুন (বুধবার) থেকে বাজেট অধিবেশন শুরু হচ্ছে। অধিবেশন শুরুর পরের দিন অর্থাৎ ১১ জুন বৃহস্পতিবার ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন হবে। এটি পাস হবে ৩০ জুন।

এ অধিবেশনটি এমন সময় শুরু হচ্ছে যখন দেশে করোনা সংক্রমণ দ্রুত বাড়ছে। সংক্রমণের ঝুঁকি থাকার কারণে যত সম্ভব স্বল্প উপস্থিতি নিয়েই অধিবেশন শুরু ও শেষ করা যায় কি-না, সে বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়। তাছাড়া মন্ত্রী এবং এমপিদের পিএস বা এপিএস না নিয়ে আসার জন্য অনুরোধ করার কথা ওঠে বৈঠকে। সেই সাথে ড্রাইভারদের মাধ্যমে যেন করোনা সংক্রমণ না ছড়াতে পারে সেজন্য তাদের বাসস্থান, গতিবিধি ইত্যাদি সম্পর্কে সচিবালয়কে জ্ঞাত করা ও করোনা টেস্ট করানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এছাড়া রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সাহচর্যে যারা থাকবেন তাদের বাধ্যতামূলক করোনা টেস্ট করানো হবে এবং বাজেট চলাকালীন দিনগুলো কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে বলেও নির্দেশনা দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।