বিজয়ের চেতনা ভূলুন্ঠিত-পদদলীত : সেলিম

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ: ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের ভোট রাতে করার মধ্য দিয়ে লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বিজয়ের চেতনা ভুলুন্ঠিত-পদদলীত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ২০ দলীয় জোট নেতা ও এনডিপি সদস্য সচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম।

সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) রাজধানীর পল্টনে দলের অস্থায়ী কার্যালয়ে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি ঢাকা মহানগর আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এই বিজয়ের দিনি আমরা আনন্দ যেমন করব একই সঙ্গে জাতীয়তাবাদী শক্তির ঐক্যের প্রতীক দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়র মুক্তি ও জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য লড়াইয়ের শপথ নিব। মনে রাখতে হবে এ সরকারের হাতে দেশের জনগণ ও সার্বভৌমত্ব নিরাপদ নয়। অতএব তাদের বিদায় করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, সাবেক তিন বারের প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন দেয়া হয় নাই। তিন তিনবারের প্রধানমন্ত্রী এত অসুস্থ, সেই মানুষ জামিন পায় না এই দেশে। অথচ ১০ বছরের সাজা মাথায় নিয়ে এখনও মন্ত্রিত্ব করে বেড়াচ্ছেন। মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে এ কোন দেশ হলো? এ দেশে মামলা নিয়ে এমপি হয়, শত শত কোটি টাকার ঋণখেলাপিরা মন্ত্রী হয়ে যাচ্ছে। আর আড়াই কোটি টাকার মিথ্যা মামলায় বিরোধী দলের নেতারা জেলে থাকছেন।

শাহাদাত হোসেন সেলিম বলেন, সরকার যে রজাকারের তালিকা প্রকাশ করেছে তারা ছিল পাকিস্তানী সরকারের বেতন ভুক্ত। একই সাথে মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে যারা পাকিস্তান সরকারের অধিনের চাকরি করেছে বেতন গ্রহন করেছে তারাও স্বাধীনতা বিরোধি ও রাজাকার। তাদের নামও রাজাকারের তালিকায় থাকা উচিত।

এলডিপি ঢাকা উত্তরের সভাপতি হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এম এ বাসার,সৈয়দ ইব্রাহিম রওনক, কাজী মতিউর রহমান মিলন, আতিকুর রহমান ফারুক প্রমুখ।