বিশ্ব ইজতেমার মুসল্লিদের জন্য বিনা টাকা-পয়সায় খেজুর-পানি!

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ: ‘বিনা টাকা-পয়সায় খেজুর ও পানি। মুসল্লি ভাইরা আসেন আসেন খেয়ে যান বিনা টাকা-পয়সায় খেজুর-পানি’ – এভাবেই হাক ডাকের মাধ্যমে ইজতেমামুখী মুসল্লিদের সেবা দিচ্ছেন মিরপুর থেকে আসা কয়েজন তরুণ ব্যবসায়ী।

একটি পিকাভ্যানে করে রোববার (১২ জানুয়ারি) ভোর থেকেই ৮ জন তরুণ মিলে পানি ও খেজুর নিয়ে এসে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে মুসল্লিদের হাতে তুলের দিচ্ছেন। তাদের পিকআপ ভ্যানের কাছে দাঁড়িয়ে দেখা গেছে, মুসল্লিরা ইজতেমা ময়দানে যাওয়ার পথে তাদের থেকে এক হাতে খেজুর নিচ্ছেন ও পানি পান করছেন। শুধু পুরুষরাই নন নারী ও শিশুরাও খেজুর-পানি পান করছেন।

মহান আল্লাহতালার নেয়ামতের আশায় ইজতেমার মুসল্লিদের জন্য এমন আয়োজন বলে জানিয়েছেন খেজুর-পানির উদ্যোক্তা জালাল হোসেন। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, আমরা যারা এখানে মুসল্লিদের জন্য খেজুর পানি নিয়ে এসেছি তারা সবাই ব্যবসায়ী। কেউ কাপড় অথবা কেউ ঝুট ব্যবসা করি। গত পাঁচ বছর ধরে ইজতেমার সময় মুসল্লিদের জন্য আমরা এমন আয়োজন করে থাকি।

কেন এমন আয়োজন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মুসলিম ভাইদের জন্য কিছু করতে পারলে নিজেদের পাপ কিছুটা হলেও মুক্ত হবে। মুসল্লি ভাইজানরা খাবেন ও আমাদের জন্য দোয়া করবেন এটাই আমাদের সবার চাওয়া।

বিশ্ব ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত করতে যাবেন মদিনাতুল মাদ্রাসার হাফেজ মোহাম্মাদ কামাল হোসেন। তিনি যাওয়ার পথে পিকআপ ভ্যান থেকে খেজুর ও পানি পান করেন। তিনি বলেন, তাদের এ উদ্যোগ খুব ভালো দিক। ইজতেমায় অনেক দূর থেকে মুসল্লিরা আসেন। অনেকই পানি পান না। তাদের এ উদ্যােগে মুসল্লিরা অন্তত পানি পান করতে পারছেন। আল্লাহতালা এই তরুণদের ভালো রাখুক।

রাজা নামের আরেক উদ্যোক্তা বলেন, আমরা এখানে প্রায় দেশ শতাধিক সৌদি খেজুরের বক্স এনেছি। এছাড়া ৫০টি পানির জার (বড় বোতল) এনেছি। ভোর পাঁচটা থেকেই আমরা এগুলো বিতরণ শুরু করছি। অর্ধেকের বেশি শেষ হয়ে গেছে। ইনশাল্লাহ মোনাজাতের পরেও আমরা খেজুর পানি বিতরণ করতে পারবো।

error0