ভাষা সৈনিক সুফিয়া আহমেদের ইন্তেকালে বাংলাদেশ ন্যাপ’র শোক

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ: জাতীয় অধ্যাপক, ভাষা সৈনিক ড. সুফিয়া আহমেদের ইন্তেকালে গীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

শোকবার্তায় নেতৃদ্বয় মরহুমার রুহের মাগফেরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে বলে ৫২’র ভাষা আন্দোলনে একজন নারী হিসাবে তার অবদান অবশ্যই শ্রদ্ধার সাথে জাতি স্মরণ করবে।

উল্লেখ্য, ভাষা সৈনিক ড. সুফিয়া আহমেদ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) রাত ৮টা ৫০ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। ইন্তেকালের সময় তার বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর।

তিনি তত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা, সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতি’র সাবেক সভাপতি মরহুম ব্যারিষ্টার সৈয়দ ইসতিয়াক আহমেদের স্ত্রী, বিচারপতি সৈয়দ রিফাত আহমেদের মা এবং মরহুম বিচারপতি মুহাম্মদ ইব্রাহিমের কন্যা । তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন । ‘৫২’র ভাষা আন্দোলনের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি ।

মৃত্যুকালে তিনি এক পুত্র বিচারপতি সৈয়দ রিফাত আহমেদ, এক কন্যা ডা: রাইনা আহমেদ, জামাতা ব্যারিষ্টার আনাতুল ফাতেহ এবং তিনজন নাতি নাতনি রেখে গেছেন । ভাষা আন্দোলনে অবদানের জন্য ২০০২ সালে তিনি দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার একুশে পদক লাভ করেন। ২০১৫ সালে সুফিয়া কামাল পুরস্কার লাভ করেন এ ভাষাসৈনিক।