মানুষের ক্রয়ক্ষমতা ২.৫ ভাগ বেড়েছে : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, গত ১১ বছরে দেশের মানুষের ক্রয় ক্ষমতা আড়াই শতাংশেরও বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি আজ রাজধানীতে বাংলাদেশ ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আগের চেয়ে বর্তমানে দেশের মানুষের জীবনযাত্রার মান ভাল এবং তাদের ক্রয় ক্ষমতাও বেড়েছে।’

গণমাধ্যমকর্মী আইন শিগগিরই মন্ত্রিসভায় তোলা হবে বলে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, গণমাধ্যম কর্মী আইন আমরা খুব সহসাই মন্ত্রিসভায় নিয়ে যেতে পারবো বলে আশা করছি। সম্প্রচার আইন নিয়ে আইনমন্ত্রীর সঙ্গেও কথা বলেছি। তারাও সেটি খুব সহসাই ছাড় করে দেবে বলে আমাকে জানিয়েছে।

কবে নাগাদ সম্প্রচার আইন ছাড়া হতে পারে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, সময়টা আমি বলতে পারছি না। সেটি আইন মন্ত্রণালয়েই আছে অনেক দিন ধরে। তাদেরকে আমরা প্রায় তাগাদা দেই। সবশেষ বলেছে, সহসাই তারা দিয়ে দেবে।

‌আওয়ামী লীগের সম্মেলনে নতুন নেতৃত্ব আসবে কিনা জানতে চাইলে হাছান মাহমুদ বলেন, সম্মেলন সবসময় হয় নতুন রক্ত সঞ্চালন করার জন্য। সুতরাং আগামী সম্মেলনেও নবীন-প্রবীণের সমন্বয়ে একটি সুন্দর কার্যকরী কমিটি আসবে বলে আমি আশা করছি। তবে এ বিষয়টি একান্তই প্রধামন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতির, যিনি চার দশক ধরে আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন। বঙ্গবন্ধুহীন আওয়ামী লীগকে মায়ের মমতায়, বোনের স্নেহে চার চারবার ক্ষমতায় নিয়ে গেছেন। তিনি নিশ্চয়ই আওয়ামী লীগে অতীতের মতোই যোগ্য নেতা নির্বাচন করবেন।

এসম্য বিএনপি প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, গত সাড়ে ১০ বছর ধরে তারা (বিএনপি নেতাকর্মী) জনগণতে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। তাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে জনগণকে বিভ্রান্ত করে দুর্নীদির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত খালেদা জিয়ার জন্য কিছু করা যায় কিনা। আর দুর্নীতির দায়ে শাস্তিপ্রাপ্ত ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে কোনোভাবে দেশে আনা যায় কিনা। জনগণ কখনো তাদের এসব বিষয়ে সাড়া দেয়নি। এগুলো বলে লাভ নেই।

দেশ বর্তমানে ভালো আছে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে গত ১১ বছরে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে। দ্রব্যমূল্য অনেক ক্ষেত্রে কমেছে। কোনো কোনোটার বাড়লেও মানুষের ক্রয়ক্ষমতা যেহেতু বেড়েছে, সে জন্য মানুষ আজ থেকে ১১ বছর আগের তুলনায় অনেক ভালো আছে।

‘মাথাপিছু আয় সাড়ে তিনগুণের বেশি বেড়েছে। মানুষের ক্রয়ক্ষমতা প্রায় তিনগুণের কাছাকাছি বেড়েছে। বিশ্বব্যাপী সব জায়গাতেই পণ্যমূল্য বেড়েছে। ১০ বছর আগের তুলনায় আমেরিকা-ইউরোপে দ্রব্যের মূল্য বেড়েছে। কিন্তু দেখতে হবে মূল্যবৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে কিনা। ১০ বছর আগে একজন রিক্সাচালক ৩০০-৪০০ টাকা আয় করে কয় কেজি চাল ক্রয় করতো, আর আজকের দৈনিক আয় দিয়ে কত কেজি চাল কিনতে পারছে। আজ থেকে ১০-১১ বছর আগে শ্রমজীবি মানুষ তার আয় দিয়ে ৫-৬ কেজি চাল কিনতে পারতো। এখন সে ১০-১২ কেজি বা আরও বেশি চাল কিনতে পারে। সুতরাং মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে। এটিই হচ্ছে বড় বিষয়। এগুলো নিয়ে বাগাড়ম্বর করে আসলে বিএনপি হালে পানি পাচ্ছে না।’

ইংরেজি মাধ্যম স্কুল অ্যাকাডেমিয়া থেকে ও লেভেল এবং এ লেভেল পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের পুরস্কার বিতরণী উপলক্ষে ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ অডিটোরিয়ামে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে অ্যাডেক্সেল কারিকুলামের আওতায় ২০১৯ সালে ভালো ফলাফলের জন্য ও লেভেলের ১২৫ এবং এ লেভেলের ৬৮ শিক্ষার্থীকে পুরস্কৃত করা হয়।

অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী ছাড়াও আরও বক্তব্য দেন- ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সির ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য মিলান পাগন, অ্যাডেক্সেলের কান্ট্রি ম্যানেজার সাইদুর রহমান, অ্যাকাডেমিয়ার চেয়ারপারসন সাওয়াত জেব, অধ্যক্ষ ড. এম মাহবুবুল হক প্রমুখ।