মুন্সীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ জন নিহত

প্রকাশিত

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি: মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে বাসের চাপায় বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের চালকসহ কমপক্ষে ১০ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১০ জন। শুক্রবার (২২ নভেম্বর) দুপুর ২টার দিকে উপজেলার ষোলঘর বাসস্ট্যান্ডে ঢাকাগামী মাইক্রোবাসের সঙ্গে স্বাধীন পরিবহনের মুখোমুখি সংঘর্ষে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন আবদুর রশিদ (৭০), নিপা আক্তার (২৪), তাবাসসুম আক্তার (৬), রেনু আক্তার (১০), মো. তাহসান (৫), কেরামত আলী (৭২), মফিদুল মোল্লা (৬০), মো. বিল্লাল (৪০) ও রুনা আকতার (২৪)।

জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম বলেন, এ ঘটনায় মাইক্রোবাসের চালকসহ ১০ জন নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে ৬ জন দুর্ঘটনাস্থলে, দুই জন ষোলঘর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও দুই জন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। গুরুতর আহত আছেন আরও দুইজন। এছাড়া আরও কয়েকজন আহত রয়েছেন।

তিনি আরও জানান, মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলা থেকে মাইক্রোবাসটি ঢাকা অভিমুখে যাচ্ছিল। মাইক্রোবাসের সবাই ছিল বরযাত্রী। তবে, তারা সবাই একই পরিবারের ছিল কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

হাঁসাড়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আব্দুল বাসেদ বলেন, মাওয়াগামী স্বাধীন পরিবহনের বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ঢাকাগামী মাইক্রোবাসের উপরে গিয়ে পড়লে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মাইক্রোবাসের আরোহীরা সবাই আত্মীয়-স্বজন ছিল। কিন্তু একই পরিবারের ছিল কিনা জানা যায়নি। নিহতদের মধ্যে শিশুও রয়েছে। তারা লৌহজং এর কনকসার ইউনিয়নের বাসিন্দা ছিল বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি।

শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেদায়েতুল ইসলাম ভূঁইয়া জানান, আট জনের মরদেহ শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আছে। আর দুইজন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন বলে জানা গেছে। মাইক্রোবাসে কতজন যাত্রী ছিল তাও এখনো সঠিক জানা যায়নি।