বিভাগ - সারাদেশ

মোরেলগঞ্জে ইউপি মেম্বার সোহেল খানকে পিটিয়ে পুলিশে সোপর্দ

প্রকাশিত

বাগেরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে সোহেল খান (৪৫) নামে ইউনিয়ন পরিষদের এক মেম্বারকে পিটিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসি। ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার রাত ১২ টায় উপজেলার চিংড়াখালী ইউনিয়নে। এদিন রাতেই পুলিশ তাকে মোরেলগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করে। বড়জামুয়া গ্রামের খলিল খানের ছেলে সোহেল খান চিংড়াখালী ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড মেম্বার ও ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। পুলিশ হেফাজতে মোড়েলগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ চিকিৎসায় রয়েছে।

সোহেল খানের মা রাহেলা বেগম ও স্ত্রী শিমুল বেগম বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত শত্রুতার কারণে পরিকল্পিতভাবে সোহেলকে মারপিট করা হয়েছে। সোহেল খান ইউনিয়ন যুবলীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক বলেও দাবি করেছেন তার মা ও স্ত্রী।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধীক এলাকাবাসী জানায়, সোহেল মেম্বারের অত্যাচারে আমরা এলাকাবাসী অতিষ্ট, সে দলের নাম লাগিয়ে এমন কোন কু-কর্ম নাই যে-সে করে না। মাদক মাদক মামলা থেকে শুরু করে হত্যা,চাঁদা বাজির একাধীক মামলার আসামী সোহেল খান। এখন দলের কোন পদ-পদবী নাই তার পরও দলের নাম করে নানা প্রকার অনৈতীক কর্ম কান্ড করছে।

এ বিষয়ে উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মোজাম্মেল হক মোজাম বলেন, অনৈতিক কর্মকা-ের কারণে অনেক আগেই সোহেল খানকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। দলে তার সদস্যপদও নেই। এ বিষয়ে থানার ডিউটি অফিসার এসআই আব্দুল কাদের বলেন, সোহেল খানকে মারপিট করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় লোকজন। পুলিশ হেফাজতে হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে। তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোহেল খানের বিরুদ্ধে হত্যা, চাঁদাবাজি, মাদকসহ ৮/১০টি মামলা রয়েছে।