বিভাগ - খেলাধুলা

ম্যানইউকে বাংলাদেশে আনতে গুণতে হবে ২৮ কোটি টাকা!

প্রকাশিত

স্পোর্টস ডেস্ক: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বড় আয়োজন করতে চায় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। এরই অংশ হিসেবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে আনার চেষ্টা চলছে। কিন্তু এই ম্যাচ খেলার বিনিময়ে ৩ মিলিয়ন ইউরো বা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২৮ কোটি ২ লাখ টাকা দাবি করেছে ইংলিশ জায়ান্টরা।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে পরের বছরের মার্চ পর্যন্ত দেশে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে। এর মধ্যে থাকবে খেলাধুলার নানা আয়োজন। এরই অংশ হিসেবে ঢাকায় আসবে ম্যানইউ। শুধু তাই না, ইউরোপের জুভেন্টাস এবং পিএসজির মতো দলকেও আনার চেষ্টা করছে বাফুফে।

ম্যাচের ভেন্যু, আবাসিক সুযোগ-সুবিধা ও নিরাপত্তার বিষয়গুলো খতিয়ে দেখতে ঐতিহ্যবাহী দলটির চার প্রতিনিধি এক দিনের সফরে মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) ঢাকায় এসেছেন। ম্যাচ সংশ্লিষ্ট বিষয় খতিয়ে দেখার অংশ হিসেবে বিকেলে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম পরিদর্শন করেন তারা।

‘রেড ডেভিলস’ খ্যাত ক্লাবটির প্রতিনিধি দলে আছেন ফুটবল পরিচালক অ্যালান জন ডনস, সফর ও প্রীতি ম্যাচ আয়োজক কমিটির পরিচালক ক্রিস্টোফার লরেন্স কোম্যান। এছাড়া আরও দুই কর্মকর্তা ম্যালকম স্মিথ ও ম্যাথু চালর্স জোনস। এই প্রতিনিধি দলের সদস্যরা ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের সঙ্গে বৈঠক করেন।

বৈঠকের বিষয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি ম্যানইউ প্রতিনিধি দলের কেউই। তবে এই ম্যাচের উদ্যোক্তা অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান জানিয়েছেন, ‘ম্যানিউ’র প্রতিনিধি দল এখানে নিরাপত্তা, মাঠ ও আবাসন সুবিধা দেখতে এসেছেন। আমরা আশা করি, নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা থাকবে না। ম্যানইউ’র সঙ্গে আমরা বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সেরা একাদশ নিয়ে ম্যাচ আয়োজনের চেষ্টা করছি। আগামী জুলাইয়ে তারা এশিয়া সফরে আসবে। সে অনুযায়ী যে দুদিন ফাঁকা পাওয়া যাবে তার একদিন ঢাকায় আনার চেষ্টা চলছে। এই ম্যাচটির পোশাকি নাম হবে বঙ্গবন্ধু চ্যালেঞ্জ কাপ।’

ভারতের ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট গ্রুপ সিএমজির মাধ্যমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ১৩ বারের চ্যাম্পিয়ন দলটিকে আনার চেষ্টা চলছে অন্তর শোবিজ। তবে এজন্য ম্যানইউ’কে প্রায় ২৮ কোটি টাকা দিতে হবে বলে জানিয়েছেন স্বপন চৌধুরী। এজন্য সরকার এবং স্পন্সরদের সহযোগিতা আশা করছেন তিনি।

এদিকে এর আগে বিকেলে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম পরিদর্শনে এসে ইংলিশ জায়ান্টদের এক প্রতিনিধি পাঁচ রকমের ঘাস থাকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তবে অন্যান্য বিষয় নিয়ে তারা মোটামুটি সন্তুষ্ট বলেই মনে করেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ম্যাচটির ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের উপদেষ্টা হিসেবে যুক্ত থাকা আবদুল গাফ্‌ফার। ম্যাচের আগেই সব ঠিক করা হবে বলে ম্যানইউ’র প্রতিনিধিদের আশ্বস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন এই সাবেক ফুটবলার।