বিভাগ - সারাদেশ

যশোর বোর্ডে ১ লাখ ৬১ হাজার ৬শ’ ৯৫ জন এসএসসি পরীক্ষার্থী

প্রকাশিত

বেনাপোল প্রতিনিধি: আগামীকাল সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে এসএসসি পরীক্ষা। পরীক্ষ্ ানিয়ে সাতটি জরুরি নির্দেশনা জারি করেছে যশোর শিক্ষাবোর্ড। কেন্দ্র সচিবদের প্রতি জারি করা এ নির্দেশনা পালনে কোনো রকম শৈথিল্য প্রদর্শন করা হলে দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। যশোর শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা বিভাগ থেকে পাওয়া তথ্যানুযায়ী, এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় মোট এক লাখ ৬১ হাজার ছয়শ’ ৯৫ জন পরীক্ষার্থীর অংশগ্রহণের কথা রয়েছে। বোর্ডের আওতাধীন ২৫শ’ ২১ টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে পরীক্ষা দেবে এসব পরীক্ষার্থী। দুশ’ ৮৬ টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে পরীক্ষা। এবারের এসএসসি পরীক্ষায় ৮০ হাজার ছয়শ’ ৭০ জন ছাত্র ও ৮১ হাজার ২৫ জন ছাত্রী অংশগ্রহণ করবে বলে জানিয়েছেন বোর্ড কর্মকর্তারা। শিক্ষাবোর্ড থেকে জানানো হয়েছে, এবারের এসএসসি পরীক্ষায় খুলনা জেলায় ২৪ হাজার চারশ’ ৬০ জন, বাগেরহাটে ১৩ হাজার আটশ’ ৮৭, সাতক্ষীরায় ১৮ হাজার একশ’ নয়, কুষ্টিয়ায় ২২ হাজার একশ’ ১০, চুয়াডাঙ্গায় ১০ হাজার চারশ’ ৫০, মেহেরপুরে সাত হাজার আটশ’ ৭১, যশোরে ২৭ হাজার আটশ’ ৪০, নড়াইলে আট হাজার আটশ’ ৬৮, ঝিনাইদহে ১৮ হাজার একশ’ ৪৯ ও মাগুরায় নয় হাজার নয়শ’ ৪৭ পরীক্ষার্থী রয়েছে। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন করতে যশোর শিক্ষাবোর্ড থেকে জারিকৃত সাতটি নির্দেশনার মধ্যে রয়েছে, প্রশ্নপত্রের সকল প্রকার নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, পরীক্ষার্থীদের সকাল সাড়ে নয়টার মধ্যে পরীক্ষা কক্ষে প্রবেশ নিশ্চিত করা, প্রশ্নপত্রে উল্লেখিত সময় অনুযায়ী পরীক্ষা গ্রহণ করা, কোনো কক্ষ পরিদর্শক/পরীক্ষার কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা ও কর্মচারী পরীক্ষা কেন্দ্রে কোনো প্রকার মোবাইল ফোন যাতে ব্যবহার না করেন সেই বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া, পরীক্ষার্থীর প্রবেশপত্র ও নিবন্ধন কার্ড অবশ্যই সাথে রাখা, পরীক্ষার্থীর নিবন্ধন কার্ডে উল্লেখিত বিষয় ছাড়া পরীক্ষা গ্রহণ না করা এবং বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন পরীক্ষার্থীদের উত্তরপত্র হলুদ কাপড়ে এবং বহিষ্কৃত পরীক্ষার্থীদের উত্তরপত্র লাল কাপড়ে প্যাকিং করে আলাদাভাবে বোর্ডে পাঠানো।

বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মাধব চন্দ্র রুদ্র স্বাক্ষরিত জরুরি এ নির্দেশনাপত্র সকল কেন্দ্র সচিবকে দেয়া হয়েছে নির্দেশনার পাশাপাশি শিক্ষাবোর্ড থেকে পরীক্ষা পরিচালনা সংক্রান্ত নীতিমালা সরবরাহ করা হয়েছে। পৃথক আরেক পত্রে কেন্দ্র সচিবদের সতর্কতা অবলম্বনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ‘সিকিউরিটি প্যাকেট খোলার সময় পরীক্ষার সময়সূচি অনুযায়ী সেটকোড, বিষয়, পত্র, বিষয় কোড ভালোভাবে দেখে এবং সিকিউরিটি প্যাকেট খোলার পরও এসব ভালোভাবে যাচাই করে প্রশ্নপত্রের প্যাকেট খুলতে হবে। প্যাকেট খোলার পর কোনো প্রকার ত্রুটি পরিলক্ষিত হলে সাথে সাথে স্থানীয় প্রশাসন ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রককে অবহিত করতে হবে।’এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষাকে সামনে রেখে সকল প্রকার প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে যশোর শিক্ষাবোর্ড। এসএসসি পরীক্ষার যাবতীয় উপকরণ স্ব স্ব কেন্দ্রে পৌঁছে দেয়া হয়েছে। সামনের এইচএসসি পরীক্ষার উত্তরপত্রসহ অন্যান্য জিনিসপত্র বোর্ডে সংরক্ষণ করা হচ্ছে।

এসব বিষয়ে শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মাধব চন্দ্র রুদ্র বলেন, সকল প্রকার প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। কেন্দ্র সচিবদের প্রতি প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। মতবিনিময় করা হয়েছে তাদের সাথে। বোর্ডের নির্দেশনার বাইরে কোনো কিছু করা যাবে না।