যৌন আক্রমণ আর না!

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ: নারীপক্ষ’র উদ্যোগে দেশব্যাপী ক্রমবর্ধমান নারী ও শিশু ধর্ষণ ঘটনার প্রতিবাদে আজ সোমবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬/ ২ ডিসেম্বর ২০১৯ বিকাল ৪.০০ থেকে ৫.০০ মোহাম্মদপুর থানার অপর পাশে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়। কর্মসূচিতে লিফলেট বিতরণ, শ্লোগান দেয়া ও প্রতিবাদী গান পরিবেশন করা হয়। লিফলেট পাঠ করেন নারীপক্ষ’র সদস্য রেহানা সামদানী কনা। ‘পথে এবার নামো সাথী পথেই হবে আবার দেখা’, ‘চিৎকার কর মেয়ে দেখি কতদুর গলা যায়’, ‘আমি ভয় করবোনা ভয় করবো না’, ‘বান এসেছে মরা গাঙ্গে’, ‘দুর্গমগিরি কান্তার মরু’, গান বাজানো হয়েছে।

ক্রমবর্ধমান নারী ও শিশু ধর্ষণ ঘটনার প্রতিবাদে ঘটনাগুলোর ভয়াবহতা জনসম্মুখে তুলে ধরার লক্ষ্যে ‘শিক্ষক কর্তৃক যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করায় আগুনে পুড়িয়ে হত্যা’, ‘চলন্ত বাসে দলবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যা’, ‘ধর্ষণের পর হত্যা’, ‘ধর্ষণ’ ‘দলবদ্ধ ধর্ষণ’, ‘ধর্ষণের পর আত্মহত্যা’, ‘ধর্ষণ (বুদ্ধি প্রতিবন্ধি)’, ‘অপহরণের পর ধর্ষণ’ লেখা প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ ভাদ্র ১৪২৬/৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ নারী ও শিশু ধর্ষণের ক্রমবর্ধমান ঘটনার প্রতিবাদে কর্মসূচির মাধ্যমে দেশব্যাপী নারীর সুরক্ষা অভিযানের সূচনা করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় নারীপক্ষ গত ২ আশ্বিন ১৪২৬/১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫ আশ্বিন ১৪২৬/৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২৮ আশ্বিন ১৪২৬/১৩ অক্টোবর ২০১৯, ২৪ অক্টোবর ২০১৯ এবং ১৯ কার্তিক ১৪২৬/৪ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬/১৮ নভেম্বর ২০১৯ প্রতিবাদ অবস্থান কর্মসূচি করেছে। ২৫ নভেম্বর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে ২৪টি জেলায় প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। উল্লেখ্য কর্মসূচির ধারাবাহিকতায় প্রতি ১৫দিন পর পর ঢাকা শহরসহ বিভিন্ন স্থানে এই ধরনের প্রতিবাদ অবস্থান কর্মসূচি করবে। অবস্থান কর্মসূচীতে নারীপক্ষ’র সহযোগী সংগঠনসহ সেতু কুষ্টিয়া ও ব্রতী এর প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন।

error0