বিভাগ - সারাদেশ

রাজাপুর উপজেলা আ’লীগের ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটি ঘোষনা

প্রকাশিত

রাজাপুর প্রতিনিধিঃ রাজাপুর উপজেলা আ’লীগের ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটি ঘোষনা ও কর্মি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শনিবার বিকেল পাচটায় রাজাপুর উপজেলার বাইপাস মোড় এলাকায় উপজেলা আ’লীগের প্রধান কার্যালয়ের সামনে রাজাপুর-ভান্ডারিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও রাজাপুর উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মিলন মাহমুদ বাচ্চুর সভাপতিত্বে ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঠালিয়া) আসনের সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বজলুল হক হারুনের নেতৃত্বে আওয়ামীলীগের উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন ও ৫৪টি ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যদের নাম ঘোষনা করেন।

এমপি হারুনের কর্মি সমাবেশ প্রতিহত করার জন্য একই সময়ে উপজেলার ডাকবাংলো মোড় এলাকায় রাজাপুর উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির আহবায়ক অ্যাড খায়রুল আলম সরফরাজের নেতৃত্বে রাজাপুর উপজেলা সম্মেলন প্রস্তুতি কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।গত দুই দিন ধরে আ’লীগের উভয় পক্ষের সমাবেশের আয়োজনকে কেন্দ্র করে উপজেলা জুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করেছিলো।ফলে উপজেলায় সর্বত্র উৎকন্ঠা ও উত্তেজনা দেখা দেওয়ায় বিভিন্ন বিপুল সংখ্যাক পুলিশ মোতায়েন করা হয়।পুলিশের কঠোর অবস্থানের মধ্যেই দু’পক্ষ শান্তিপূর্ণ ভাবে সমাবেশ করেছে।গত বৃহস্পতিবার বিকেলে স্থানীয় এমপি বজলুল হক হারুনের পক্ষ থেকে উপজেলা অডিটোরিয়ামে সমাবেশ করার ঘোষণা দিলেও পরবর্তীতে উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদকের পক্ষ থেকেও একই দিন উপজেলা অডিটোরিয়ামে সমাবেশ করার অনুমতি চাওয়া হয়।ফলে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা শুরু হলে প্রশাসন কঠোর অবস্থানে থেকে শনিবার বিকেলে এমপির পক্ষে আ’লীগ প্রধান কার্যালয় বাইসপাস এলাকায় এবং অপরপক্ষ ডাকবাংলো মোড় এলাকায় সমাবেশের প্রস্তুতি নিয়ে সমাবেশ করে।

সমাবেশে এম পি হারুন তার বক্তব্যে রাজাপুর কাঠালিয়ায় আ’লীগের মধ্যে বিভক্ত হতে দিবে না বলে সকলকে একসাথে কাজ করার আহ¦বান জানান।সমাবেশে ব্যাপক নেতা কর্মি উপস্থিত ছিলেন। রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জাহিদ হোসেন বলেন,পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের কঠোর অবস্থানের কারনে উভয় পক্ষের সভা শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে।