রিজেন্টের সাহেদদের মতো ব্যক্তিদের বাঁচিয়ে রাখা উচিত নয়: এমপি হারুণ

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর রিজেন্ট হাসপাতালে করোনাভাইরাস টেস্টে অনিয়মের কথা উল্লেখ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে উদ্দেশে বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ বলেছেন, ‘রিজেন্ট হাসাপতালে যারা পরিচালনা বোর্ডে ছিলেন। যারা কর্তৃপক্ষ, তাদের অগোচরেই কি এসমস্ত অপকর্ম হয়েছে? তাদের বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা নিয়েছে এতে সন্তষ্ট নই, এই রকম ব্যক্তিদের বাঁচিয়ে রাখা উচিত নয়। তাদের ক্রসফায়ার করে দেওয়া উচিত।’

বুধবার (৮ জুলাই) স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে হারুনুর রশীদ এ বিষয়ে সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এসব কথা বলেন।

কোভিড টেস্টের লাইসেন্স যাদের দেওয়া হয়েছে সেগুলোতে অনিয়ম-দুর্নীতি হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘স্বাস্থ্যখাতের অনিয়ম-দুর্নীতি চলছেই। যারা আবেদন করেছিল, সেখানে দলীয় বিবেচনা করা হয়েছিল বলেই যাদের কোভিড টেস্টের মতো সক্ষমতা ও জনবল আছে তাদের অনেককেই দেওয়া হয়নি।’

বিএনপির দলীয় সংসদ সদস্য আর বলেন, ‘স্বাস্থ্যখাতের যে বেহাল দশা, স্বাস্থ্য অধিদফতরের যে বেহাল দশা, আগেই বলেছি এই অবস্থান থেকে পরিত্রাণের জন্য উপযুক্ত ব্যক্তিকে দায়িত্ব দেন। গতকালকে ঢাকায় রাজধানীর মতো জায়তায় রিজেন্ট হাসপাতাল সেখানে করোনা চিকিৎসার ভুয়া প্রত্যয়নপত্র দেওয়া হয়েছে। একটি-দুটি নয় ৬ হাজারের অধিক এবং তারা আবার সরকারের কাছে টাকা দাবি করেছে।’

তিনি বলেন, ‘চীনের ফ্লাইট বন্ধ, ইতালির ফ্লাইট বন্ধ। কারণ প্রবাসীরা বাইরে যাচ্ছে সেখানে বিমানবন্দরে কোভিড-১৯ র‌্যাপিড টেস্ট করা হচ্ছে। সেখানে তারা করোনা পজিটিভ। যে কারণে ওই সকল দেশ ফ্লাইট বন্ধ করছে। এত অপরাধের সঙ্গে জড়িত। যেখানে বার বার বলে আসছি এই লাইসেন্সটি দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর।’

এমপি হারুন বলেন, ‘বার বার বলেছি বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে যে কোভিড টেস্টের লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে এই লাইসেন্সগুলোতে অনিয়ম-দুর্নীতি হয়েছে। যারা আবেদন করেছিল সেখানে দলীয় বিবেচনা করা হয়েছিল বলেই যাদের সক্ষমতা আছে কোভিড টেস্টের মতো জনবল আছে তাদের অনেককেই দেওয়া হয়নি। কিন্তু আজকে অনিয়ম-দুর্নীতির সঙ্গে যারা জড়িত তাদের দেওয়া হয়েছে।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি আরও বলেন, ‘যদিও সংসদ নেতা দিন-রাত পরিশ্রম করছেন, বিভিন্ন পদক্ষেপ ঘোষণা করছেন। সেই ঘোষণা শুধু ঘোষণাই থেকে যাচ্ছে মাঠ পর্যায়ে ব্যাপক দুর্নীতি-অনিয়মের কারণে।’

এছাড়া করোনা মোকাবিলায় বিভিন্ন প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদও জানান তিনি।