বিভাগ - শিক্ষা

সীমান্তে যখন পাখির মতো গুলি করে মানুষ মারছে, বলা হচ্ছে গরু চোর: ভিপি নুর

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নাগরিক হত্যার প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালেয়ে মশাল মিছিল করেছে প্রগতিশীল ১২টি ছাত্র সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত ‘সন্ত্রাসবিরোধী ছাত্র ঐক্য।’

সোমবার (২৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালেয়ের টিএসসি সংলগ্ন রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশ থেকে এ মশাল মিছিল বের করা হয়। মিছিল ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে কলাভবন হয়ে রাজু ভাস্কর্যে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, ‘আজ সীমান্তে যখন পাখির মতো গুলি করে মানুষ মারা হচ্ছে তখন তারা বলছে এরা নাকি গরু চোর। তারা তো গরু চুরি করতে গিয়েছিল কিন্তু আপনারা তো জনগণের ভোট চুরি করে ক্ষমতায় আছেন। ব্যাংকগুলোকে, শেয়ারবাজার, দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করে অর্থনীতিকে একটা ফাঁকা বেলুন বানিয়েছেন। যে কোনো সময় ফুস, তারপর দেখবেন দেশের মানুষের কী অবস্থা হয়।’

তিনি বলেন, ‘যদি আজকে জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দিতে পারেন তাহলে ক্ষমতায় থাকেন নতুবা পদত্যাগ করুন। আজকে যদি সীমান্ত হত্যা বন্ধ করতে পারেন, তাহলে নিজেকে জনপ্রতিনিধি হিসাবে দাবি করুন নতুবা ইস্তফা দেন।’

সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি আল কাদেরী জয় বলেন, ‘সারাবিশ্বের কোনো দেশে এরকম হত্যাকাণ্ড দেখাতে পারবেন না। পৃথিবীর কোনো দেশে এরকম তিনদিকে কাঁটাতার দেখাতে পারবেন না। সরকারকে অবশ্যই সীমান্ত হত্যার প্রতিবাদে সংসদে নিন্দা প্রস্তাব পাস করতে হবে এবং আন্তর্জাতিকভাবে এর বিচার করতে হবে।’

ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা বলেন, ‘বর্তমান বাংলাদেশে একটি ফ্যাসিস্ট সরকার, স্বাধীনতার চেতনার কথা বলে সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টি করছে। তারা একের পর এক জাতিগত দখলদারিত্ব তৈরি করে চলছে।’

মশাল মিছিলে এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল-মামুন, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি মাসুদ রানা, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ইকবাল কবীর, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মাহমুদ, বিপ্লবী ছাত্র-যুব আন্দোলনের সভাপতি আতিফ অনিক, নাগরিক ছাত্র ঐক্যের আহ্বায়ক সাকিব আনোয়ার, বৃহত্তর চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিপুল চাকমা ও স্বতন্ত্র জোটের নেতা এসকে তাসনিম আফরোজ ইমিসহ বিভিন্ন প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীরা।