সুফিয়া কামাল নারী প্রগতি আন্দোলনের অকুতোভয় যোদ্ধা : মোস্তফা

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিরবদক: কবি সুফিয়া কামালকে আধুনিক বাংলাদেশের নারী প্রগতি আন্দোলনের অন্যতম একজন কবি, একজন লেখিকা, ধর্মান্ধতা ও অসাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে অকুতোভয় যোদ্ধা হিসাবে আখ্যায়িত করেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

বুধবার (২০ নভেম্বর) নয়াপল্টনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে নারীমুক্তি আন্দোলনের অগ্রদূত কবি সুফিয়া কামালের ২০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্র আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, কবি সুফিয়া কামাল সমাজ ও দেশের জন্য ভাবতেন৷ যে কোনো আন্দোলনে তিনি ছিলেন সক্রিয়। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ১৯৬৯ এর গণ অভ্যুত্থান, ১৯৭১ এর মুক্তিযুদ্ধে তিনি ছিলেন সক্রিয়। মুক্তিযুদ্ধে তিনি হানাদারদের ভয়ে ভীত ছিলেন না। মুক্তিযোদ্ধাদের সাহায্য করেছেন। তাঁর জীবন ছিল সংগ্রামের। সমাজ সংস্কারে কাজ করেছেন তিনি। তাঁর বিদ্রোহী চেতনা, আত্মবিশ্বাস ছিল অসাধারণ।

ন্যাপ মহাসচিব বলেন, পাকিস্তানের পক্ষে স্বাক্ষর দান প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছিলেন যিনি, তিনিই হলেন কবি সুফিয়া কামাল। যার মানসিক সাহস ও স্বদেশপ্রেমের সর্বোচ্চ পরিচয় পাওয়া যায় মুক্তিযুদ্ধের দিনগুলিতে। মুক্তিযুদ্ধ শুরুর দুদিন আগে তিনি প্রেসিডেন্ট হাউসে ইয়াহিয়া খানের সাথে বৈঠকে যে যুক্তিপূর্ণ বক্তব্য রেখেছিলেন। তাঁর মানসিক দৃঢ়তার পরিচয় দিয়েছিলেন তা স্বয়ং ইয়াহিয়া খানকে পর্যন্ত বিস্মিত করেছিল।

তিনি আরো বলেন, সাহিত্য ক্ষেত্রে রবীন্দ্র-নজরুলের প্রত্যক্ষ সংস্পর্শে উজ্জীবিত হয়ে, তাঁদের প্রশংসায় ধন্য হয়ে, নারী মুক্তি আন্দোলনে বেগম রোকেয়ার সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতার গৌরব নিয়ে এবং দেশবাসীর মুক্তি সংগ্রামের প্রতিটি পদক্ষেপে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখে যিনি নিজেই একটি প্রতিষ্ঠান হিসাবে গড়ে উঠেছেন, তিনিই আমাদের কবি সুফিয়া কামাল। যে জীবনের একাধারে ছিল কাব্যসাধনা, নন্দনচর্চা এবং অপর প্রান্তে ছিল সমাজ সংস্কারও প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে অবিরাম সংগ্রাম। এই সংগ্রাম সতত প্রবহমান ছিল তার জন্ম থেকে মৃত্যুর শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত। এদেশের মুসলিম নারীমুক্তি আন্দোলনের যে ধারাটির সূত্রপাত ঘটিয়েছিলেন তারই অগ্রজ মহীয়সী রমনী বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন, তারই সুযোগ্য উত্তরসূরি ছিলেন একালের কবি বেগম সুফিয়া কামাল।

সংগঠনের সদস্য সচিব সোলায়মান সোহেলের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ গ্রহন করেন এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, আলোকিত কুমিল্লা নিউজ সম্পাদক মো. মহসিন ভুইয়া, ন্যাপ ঢাকা মহানগর সভাপতি মো. শহীদুননবী ডাবলু, মহিলা সম্পাদিকা সাদিয়া ইসলাম ঈমন, সংগঠনের নির্বাহী সদস্য বিশিষ্ট লেখক আলাউদ্দিন আলী, ছাড়াকার হাবিব রায়হান, আবদুল আলিম, হাসিবুল হাসান শান্ত প্রমুখ।