হঠাৎ স্থগিত গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের করোনার কিট হস্তান্তর

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনাভাইরাস শনাক্তে কিট তৈরি হলেও তা সরকারের কাছে হস্তান্তর প্রক্রিয়া স্থগিত করেছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। শুক্রবার (১০ এপ্রিল) বিকাল ৪টার দিকে কোভিড-১৯ ডট ব্লট প্রকল্পের সমন্বয়ক ডা. মুহিব উল্লাহ খোন্দকার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অত্যন্ত দুঃখিত। কোভিড-১৯ ডট ব্লট কিট হস্তান্তর স্থগিত করা হয়েছে। নতুন তারিখ শিগগিরই জানানো হবে।

শনিবার ১১ এপ্রিল কিট হস্তান্তর ও এ নিয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন করার কথা ছিল। কিট উৎপাদনের প্রক্রিয়াটি শেষ না হওয়ায় সংবাদ সম্মেলনটি স্থগিত করা হয়েছে বলে জানানো হয়। পরে এ বিষয়ে জানতে চাইলে গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল ডা. মুহিব উল্লাহ বলেন, আমাদের আরও ২-৩ দিন সময় লাগবে, পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হয়নি। স্বল্প সময়ের মধ্যেই কাজ শেষ হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে কিট হস্তান্তরের জটিলতার বিষয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আজ হঠাৎ করেই ইলেক্ট্রনিক ও যান্ত্রিক সমস্যার কারণে উৎপাদনে ত্রুটি হয়েছে। এটা সারতে দুই-তিনদিন সময় লাগতে পারে। আমরা চেষ্টা করছি দ্রুত সারাতে।

এরআগে, ১৯ মার্চ কিট উৎপাদনের অনুমতি পাওয়ার তথ্য জানিয়ে ডা. জাফরুল্লাহ বলেছিলেন, ‘সরকারের ওষুধ প্রশাসন করোনাভাইরাস শনাক্তের কিট উৎপাদনের অনুমতি দিয়েছে। এই কিট তৈরির কাঁচামাল আসবে ইংল্যান্ড থেকে। কাঁচামাল আসলে এক সপ্তাহের মধ্যে আমরা প্রোডাকশনে যেতে পারবো। দুই সপ্তাহের মধ্যে এটা বাজারে আসতে পারে। প্রথম দফায় এক লাখ কিট উৎপাদন করা হবে।

১০ লাখ টাকার কাঁচামাল লাগবে। প্রতিটি কিটের দাম হতে পারে ২০০ টাকার মতো।’ তবে সম্পূর্ণ উৎপাদিত কিট সরকারের কাছে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন তিনি।