১৪টি অভিযোগ পেয়েছি, তবে ভোটার উপস্থিতি একটু কম: উত্তরের রিটার্নিং কর্মকর্তা

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাসেম বলেছেন, ‘ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মোট ভোটকেন্দ্র ১৩১৮টি, এর মধ্যে আমি ১৪টি অভিযোগ পেয়েছি, যা ১ শতাংশের চেয়েও কম। আমি সবগুলো অভিযোগ সমাধান করে দিয়েছি। যারা অভিযোগ করেছিলেন, তাদের সঙ্গে ফোনে কথা বলে তাদের সন্তুষ্টি আদায় করেছি। সমস্যা সমাধানের পর সারাদিন এমন পরিবেশের দাবি জানিয়েছেন অভিযোগকারীরা। আমি বলেছি, এমন পরিবেশ থাকবে।’

শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) উত্তরা ৫ নম্বর সেক্টরে আইই স্কুল অ্যাণ্ড কলেজ ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাসেম বলেন, ‘আমি এখানে আসার আগে বাড্ডা সাতারকুল, মোহাম্মদপুর রেসিডেন্সিয়াল স্কুল ও কলেজে, লালমাটিয়াসহ মোট ১৪টি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগকারীরা ফোনে আমাকে জানিয়েছেন, ভোটকেন্দ্রের তুলনায় যা এক শতাংশের চেয়ে কম। আমি যখন যে অভিযোগ পেয়েছি, তা সমাধান করেছি। যারা ঝামেলা করেছে, আমি তাদের বলেছি- ভোটকেন্দ্র বন্ধ করে আপনাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

বিএনপিসহ বিভিন্ন দলের মেয়র প্রার্থী ও কাউন্সিলর প্রর্থীদের পোলিং এজেন্টকে কোনও কোনও ভোটকেন্দ্রে থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘আমি সকাল থেকে যেসব কেন্দ্রে গিয়েছি, সেখানে সব প্রার্থীদের এজেন্ট দেখেছি। কারও কোন সমস্যা আছে কিনা, নিজে ডেকে তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। কোথাও এজেন্ট নেই- এরকম আমি পাইনি। প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়র প্রার্থী ছয়জন হলেও মূলত চার জন প্রার্থীর এজেন্ট আছে।’

বায়োমেট্রিক মেশিনে অনেকের আঙ্গুলের ছাপ ম্যাচ না করার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা এমন অভিযোগগুলো লিখে নিচ্ছি। তাদের জন্য ব্যবস্থা একটি আছে। যাদের ম্যাচিং হবে না, সেগুলো আমরা লিখে রাখছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘উত্তরের সবগুলো কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণ ভোট হচ্ছে। ভোটাররা এসে সবাই ভোট দিতে পারছেন। তবে ভোটার উপস্থিতি একটু কম। কারণ আমাদের ঢাকার যুবকরা একটু লেট করে ঘুম থেকে জাগেন। আমরা আশা করছি বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার বাড়বে।’