ফটো গ্যালারি

কেন স্বামী-মেয়েকে নিয়ে শ্বশুড়বাড়ি ছাড়লেন রানি?

কেন স্বামী-মেয়েকে নিয়ে শ্বশুড়বাড়ি ছাড়লেন রানি? \

বিনোদন ডেস্ক: স্বামী আদিত্য চোপড়া ও মেয়ে আদিরাকে নিয়ে শ্বশুড়বাড়ি ছাড়লেন বলিউড অভিনেত্রী রানি মুখার্জি। জুহুতে যশ চোপড়ার বিলাশবহুল বাড়িতে বিয়ের পর থেকে থাকতেন অভিনেত্রী। কিন্তু ৫ বছর পর সেই বাড়িই ছাড়লেন তিনি। রানির সঙ্গে আদিত্য চোপড়ার বিয়ে হয় ২০১৪ সালে। তার আগে থেকেই তাদের প্রেম নিয়ে সরগরম ছিল টিনসেল টাউন। রানির সঙ্গে বিবাহ বর্হিভুত সম্পর্ক ছিল আদিত্যর, যা কখনই মানতে পারেননি আদিত্যর মা পামেলা।

আদিত্যর প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে খুব ভাল সম্পর্ক ছিল পামেলার। তাই রানির সঙ্গে ছেলের প্রেম ও বিয়ে নিয়ে অসন্তোষ ছিল তার। এবার সেই যশ ও পামেলার বাড়ি ছাড়লেন রানি। যেই বাড়িতে এতদিন একসঙ্গেই থাকতেন পামেলা, আদিত্য, রানি, তাদের সন্তান আদিরা ও যশ চোপড়ার ছোট ছেলে উদয় চোপড়া।

ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে, আদিত্য নিজের পরিবার নিয়ে একা থাকতে চাইছিলেন। তাই পুরনো বাড়ির পাশেই নিজেদের বাংলো কিনেছেন তিনি ও রানি। মূলত তাদের সন্তান আদিরাকে বড় করে তোলার জন্যই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। একেবারে সাধারণভাবে নিজেদের সন্তানকে মানুষ করতে চান রানি ও আদিত্য। তারা চান না কোনোভাবে লাইট, ক্যামেরার ঝলকানিতে বড় হোক আদিরা।

নতুন বাড়িটি পুরনো বাড়ির এতটাই কাছে, যে কোন সমস্যা হলেই দ্রুত নিজের বাড়িতে মায়ের কাছে আসতে পারবেন আদিত্য। ২০১৪ সালে আদিত্যর সঙ্গে গোপনে বিয়ে হয় রানির। ২০১৫ সালে আদিরার জন্ম দেন রানি। তার ঠিক এক বছর পর ২০১৬ সালে হিচকি ছবি দিয়ে বড়পর্দায় কাম ব্যাক করেন রানি।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ