ফটো গ্যালারি

মঞ্জুশ্রী বিশ্বাসের ইন্তেকালে বাংলাদেশ ন্যাপ’র শোক

মঞ্জুশ্রী বিশ্বাসের ইন্তেকালে বাংলাদেশ ন্যাপ’র শোক \

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাংবাদিক ও সংগঠক মঞ্জুশ্রী বিশ্বাসের ইন্তেকালে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

সোমবার গণমাধ্যমে প্রেরিত এক শোক বার্তায় নেতৃদ্বয় মরহুমার রুহের মাগফেরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে বলেন, মঞ্জুশ্রী বিশ্বাস ছিলেন মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন একজন মহিলা। তিনি মানুষের বিপদাপদে পাশে দাঁড়াতেন। মগবাজারের আমবাগানে তার ‘রজনীগন্ধা’ নামের নিজস্ব বাড়িতে কত ভাড়াটিয়া যে ভাড়া না দিয়ে থেকেছে, তার কোন হিসাব নেই।

তারা আরো বলেন, নারী অধিকার ও সাংবাদিকদের কল্যাণে তার সংগ্রাম শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে সাংবাদিক সমাজ।

উল্লেখ্য, এই গুণী মহিলা গত রোববার দিবাগত রাত ২টায় মগবাজার আমবাগানের নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেছেন। তার বড় পুত্র ফার্মাসিস্ট সুমন জানান, রোজার মাস থেকেই তার মা মঞ্জুশ্রী ছিলেন শয্যাসায়ী, বিছানা থেকে ওঠতেই পারতেন না। রোববার রাতে শরীর একেবারেই খারাপ হয়ে গেলে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাই। তবে তার আগেই তিনি ইন্তেকাল করেন।

তার স্বামী প্রখ্যাত সিনেমা সাংবাদিক ফরিদ উদ্দিন নিরদও বেশ কয়েকবছর আগে ইন্তেকাল করেন। এক সময় মঞ্জুশ্রী ইসলাম ধর্মে দীক্ষা নেন; সেই থেকে তার নাম মাসুমা বেগম হলেও মঞ্জুশ্রী বিশ্বাস নামেই তিনি পরিচিত সব মহলেই। তার বাড়ি পাবনা জেলায়। তিনি জম্মেছিলেন একটি সাংস্কৃতিক পরিবারে। তার বাবা ছিলেন যাত্রা দলের প্রখ্যাত অভিনেতা। এই সূত্রে তিনি বাংলা সিনেমায় অভিনয়ও করেছেন। পাশাপাশি ছবি প্রযোজনাও করতেন। পরে সাংবাদিকতা পেশায় থিতু হন। তিনি ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (একাংশ), বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতির (বাচসাস) সদস্য ছিলেন। এ দুটি সংগঠনের নেতৃত্বেও ছিলেন বেশ কয়েকবার।

মন্তব্য করুন