ফটো গ্যালারি

গুজব ছড়িয়ে গণপিটুনির ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

গুজব ছড়িয়ে গণপিটুনির ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী \

এওয়ান নিউজ: যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে গণপিটুনির মত ঘটনা ঘটাবে তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন ‘ছেলেধরা’ বিষয়টি নিছক গুজব। এ ধরনের ঘটনায় গণপিটুনিতে অংশ নিয়ে হত্যাকাণ্ড ঘটালে অবশ্যই আমরা তাকে আইনের মুখোমুখি করবো। আইন অনুযায়ী তাকে শাস্তি পেতেই হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বাড্ডায় গত ২০ তারিখ গণপিটুনিতে এক মায়ের নিহতের ঘটনায় যারা জড়িত আছে ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদের সনাক্ত করা হচ্ছে। এরইমধ্যে মোবাইলের ভিডিও ফুটেজ দেখে ৭ জনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া সাড়া দেশে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে আটক হয়েছে আরও ৮১ জন। ’তিনি জানান, স্কুল এবং মসজিদ-মাদরাসায় সচেতনতামূলক প্রচার চালাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া গণপিটুনিতে হত্যার মামলার চার্জশিট দ্রুত দেওয়া হবে। মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করা হবে।

দেশব্যাপী ছেলেধরা গুজবের মধ্যে কয়েকজন নিরীহ মানুষকে গণপিটুনি দিয়ে হত্যার ঘটনায় মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

তিনি বলেন, একশজন যদি এ ঘটনা ঘটান তার শাস্তি কিন্তু একই রকম হবে। এ ধরনের হত্যাকাণ্ড ঘটালে অবশ্যই আমরা তাকে আনের মুখোমুখি করবো। আইন অনুযায়ী তাকে শাস্তি পেতেই হবে।ঘটনার সত্যতা না জেনে আইন নিজের হাতে তুলে না নিতে আহ্বান জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

‘যারা এ ধরনের ঘটনার সত্যতা বিচার-আচার না করে নিজেরা আইন হাতে তুলে নিচ্ছেন, তাদের কাছে সবিনয় অনুরোধ করবো আপনারা কোনোক্রমেই আইন হাতে তুলে নেবেন না। আইন প্রয়োগকারী সংস্থা আছে, যদি কারো প্রতি কোনো রকম সন্দেহ হয়, আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হাতে সোপর্দ করেন। কিংবা তাদের ৯৯৯-এ জানান। কিংবা ওই এলাকার সবাইকে জানান।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ ধরনের ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে সে জন্য মিডিয়ার মাধ্যমে আবেদন করুন যাতে এ ধরনের দুঃখজনক ঘটনা আর না ঘটে। এরই মধ্যে কয়েকজন এ ধরনের দুঃখজনক ঘটনার শিকার হয়েছেন। আমরা বসে নেই। সবগুলো ঘটনা সামনে এনে ভিডিওফুটেজ দেখে কারা কারা সম্পৃক্ত হয়েছিলেন, আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নিচ্ছি।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ