ফটো গ্যালারি

শরীয়তপুরে চিকিৎসকের ওপর হামলার প্রতিবাদে কর্মবিরতি সহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা

শরীয়তপুরে চিকিৎসকের ওপর হামলার প্রতিবাদে কর্মবিরতি সহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা \

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অনল কুমার দে’র নেতৃত্বে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার ডা. সুমন কুমার পোদ্দারের ওপর হামলার বিচার না হওয়া পর্যন্ত প্রতিদিন ১ ঘন্টা করে কর্মবিরতি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) শরীয়তপুর জেলা শাখা। সোমবার দুপুরে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে বিএমএ’র সভা শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান, জেলা বিএমএ’র সভাপতি ডা. মনিরুল ইসলাম। এছাড়াও কালোব্যাচ ধারণ, আগামী বুধবার মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসক এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যের কাছে স্মারক লিপি প্রদান করা হবে বলেও জানান তিনি।

জানা যায়, রবিবার বিকালে ডা. সুমন কুমার পোদ্দার’কে শহরের নিপুন ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সামনে ডেকে নিয়ে অতর্কিতভাবে হামলা করে শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অনল কুমার দে এবং তার সহযোগী সবুজ দত্ত ও মাসুদ ডালিম সহ তার অন্যান্য সহযোগীরা। পরে স্থানীয়ারা তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতলে ভর্তি করে। এ ঘটনায় ডা. সুমনের ভাই ও শরীয়তপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি রঘুনাথ পোদ্দার বাদী হয়ে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অনল কুমার দে, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সবুজ দত্ত ও ছাত্রলীগ কর্মী মাসুদ ডালিমের নাম উল্লেখ করে পালং থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। এদিকে একজন চিকিৎসকের ওপর দিনদুপুরে প্রকাশ্যে রাস্তার মধ্যে ন্যাক্কারজনক হামলায় তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ধিক্কার জানিয়ে হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষনা করেছে শরীয়তপুরের নানান শ্রেণী পেশার মানুষ ও বিভিন্ন সংগঠন।

এ ব্যাপারে হামলার শিকার ডা. সুমন পোদ্দারের ভাই ও মামলার বাদী রঘুনাথ পোদ্দার বলেন, আমার ভাই তথা একজন স্বনামধন্য চিকিৎসকের ওপর হামলাকারী শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অনল কুমার দে ও তার সহযোগী সবুজ দত্ত ও মাসুদ ডালিমের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

জেলা বিএমএ’র সভাপতি ডা. মনিরুল ইসলাম খান বলেন, ডা.সুমন কুমার পোদ্দারের ওপর হামলাকারী অনল কুমার দে সহ দোষীদের শাস্তি দাবি করছি। আর হামলাকারীদের বিচার না হওয়া পর্যন্ত আমাদের কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।পালং থানার ওসি আসলাম উদ্দিন বলেন, ডা. সুমন কুমার পোদ্দারের ওপর হামলার ঘটনায় তার ভাই রঘুনাথ পোদ্দার বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে । তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এদিকে এঘটনায় অভিযুক্ত অনল কুমার দে’র বক্তব্যের জন্য তার মোবাইল ফোনে (০১৭১২৫৩৫১৭৫) বারবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (ঢাকা বিভাগ) ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, আমিতো জানতাম অনল কুমার দে ভদ্রলোক। এ ঘটনা ঘটে থাকলে তা নিন্দনীয়।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ