ফটো গ্যালারি

পাক-ভারত সম্ভাব্য আলোচনায় মধ্যস্থতা করতে প্রস্তুত ট্রাম্প!

পাক-ভারত সম্ভাব্য আলোচনায় মধ্যস্থতা করতে প্রস্তুত ট্রাম্প! \

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ওয়াশিংটন সফররত পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে সাক্ষাতে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের আগ্রহ প্রকাশ করে বলেছেন, ওয়াশিংটন দক্ষিণ এশিয়ায় পুলিশের ভূমিকা পালন করতে চায় না। ওয়াশিংটন সফররত ইমরান খান স্থানীয় সময় সোমবার রাতে হোয়াইট হাউজে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

সাক্ষাতে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সেনাপ্রধান উপস্থিত ছিলেন। এ সময় ইমরান খান ও ডোনাল্ড ট্রাম্প আফগানিস্তান পরিস্থিতি এবং পাক-ভারত উত্তেজনাসহ বিভিন্ন আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিষয়ে মত বিনিময় করেন।

ট্রাম্প আমেরিকার ক্ষমতা গ্রহণ করার পর থেকে সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে যথেষ্ট সাহায্য না করা এবং ওয়াশিংটনকে ধোকা দেয়ার জন্য পাকিস্তানকে অভিযুক্ত করে এসেছেন। কিন্তু ইমরান খানের সঙ্গে সাক্ষাতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, পাকিস্তান আফগানিস্তানে আমেরিকাকে একনিষ্ঠভাবে সহযোগিতা করছে। তিনি বলেন, আমরা আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের ব্যাপারে পাকিস্তানের সঙ্গে যোগাযোগ বজায় রাখছি এবং ইসলামাবাদ বর্তমানে ওয়াশিংটনকে আগের চেয়ে বেশি সহযোগিতা করছে।

সাক্ষাতে রাজনৈতিক উপায়ে আফগান সংকটের সমাধান করার আহ্বান জানান পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি দাবি করেন, তালেবানের সঙ্গে অচিরেই শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে এবং আমরা তালেবানকে আফগান সরকারের সঙ্গে সরাসরি আলোচনায় বসাতে পারব বলে আশাবাদী।

পাক-ভারত উত্তেজনা প্রসঙ্গে ইমরান খান বলেন, তার দেশ দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক স্বাভাবিক করার জন্য যেকোনো সময় নয়াদিল্লির সঙ্গে আলোচনায় বসতে প্রস্তুত রয়েছে। এ সময় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প পাক-ভারত সম্ভাব্য আলোচনায় মধ্যস্থতা করতে ওয়াশিংটনের প্রস্তুতির কথা ঘোষণা করেন।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ