ফটো গ্যালারি

টেপামধুপুরে সিগারেট কে কেন্দ্র করে কাউনিয়ায় ৩ বাড়ি ভাংচুর লুটপাট, আটক-২

টেপামধুপুরে সিগারেট কে কেন্দ্র করে কাউনিয়ায় ৩ বাড়ি ভাংচুর লুটপাট, আটক-২ \

কাউনিয়া (রংপুর) প্রতিনিধি ঃ কাউনিয়া উপজেলার টেপামধুপুর ইউনিয়নের চৈতার মোড় নামক গ্রামে সিগারেট না দেয়া কে কেন্দ্র করে গত বুধবার ৩টি বাড়ি ভাংচুর লুটপাট এর ঘটনা ঘটেছে। মামলার অভিযোগ ও থানা সূত্রে জানাগেছে চৈতারমোড় গ্রামের হাজের আলীর পুত্র মিঠু মিয়ার কাছে একই গ্রামের নুরল ইসলাম এর পুত্র খায়রুল ইসলাম গত মঙ্গলবার সন্ধায় গোল্ডলিফ সিগারেট চায়, হাজের আলীর পুত্র তা দিতে অস্বিকার করলে উভয়ের মঝে মারামারির ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় লোকজন তা মিটিয়ে দেয়। এই ঘটনার জের ধরে গত বুধবার নুরল ইসলাম এর পুত্র খায়রুল ইসলাম বেশ কয়েকজন দাঙ্গাবাজ ছেলেসহ রামদা, বেকি, লোহার রডসহ দেশী অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে মিঠুর চাচা খলিলুর রহমান, আঃ জলিল ও দাদা আঃ হাকিম এর বাড়ি আক্রমন করে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটতরাজ চালায়। এসময় মহিলারা বাধা দিতে গেলে তাদেও লাঞ্চিত করে দুর্বিত্তরা। খলিলুর রহমান জানায় তাদের ৩ বাড়ির টিভি, ওয়ারড্রপ, ড্রেসিং টেবিল, খাট, বাক্সসহ সকল প্রকার আসবাবপত্র ব্যাপক ভাংচুর করে এবং জমি বন্দকের নগদ ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা, বাড়িতে রাখা ২ ভরি স্বর্নালংকার ও মোবাইল ফোন লুট করে নিয়ে যায় খায়রুল গংরা। এছারা তিনটি ঘরের বেড়া দরজা জানালা রাম দা দিয়ে কুপিয়ে কুপিয়ে খত বিক্ষত করে। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে খায়রুল গং এর সাথে আসা আবু রায়হান (২৬) ও শামীম মিয়া (১৮) কে আটক করে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে তাদের ধরে থানায় নিয়ে যায়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার উলফৎ আরা বেগম জানান, ঘটনা শুনেছি ওসি সাহেব কে বলেছি ব্যবস্থা নিতে। থানা অফিসার ইনচার্জ আজিজুল ইসলাম জানান দুই জনকে ধরে আনা হয়েছে। মামলা হওয়ার পর বাকিদের ধরার ব্যবস্থা করা হবে। কোন অবস্থাতেই আইন-শৃংখলা বিঘœ ঘটতে দেয়া যাবে না। গত বুধবার রাতে খলিলুর রহমান বাদী হয়ে খায়রুল ইসলাম সহ ১৭ও অজ্ঞত আরও ১৫/১৬ জনের নামে একটি মামলা দায়র করেন। মামলা নং-৩। গত বৃহস্পতিবার ধৃত দুই আসামীকে রংপুর জেল হাজতে পাঠান হয়।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ