ফটো গ্যালারি

‘কাশ্মীর ভারতের অংশ, আপনারা দয়া করে এখানে নাক গলাতে আসবেন না’

‘কাশ্মীর ভারতের অংশ, আপনারা দয়া করে এখানে নাক গলাতে আসবেন না’ \

বিনোদন ডেস্ক : সোশ্যাল মিডিয়াতে নেটিজেনদের ব্যবহারে অতিষ্ঠ হয়ে যান তারকারা। নেটিজেনেরা তারকাদের লক্ষ্য করেই তাদের আচার-ব্যবহার কিংবা পোশাক-আশাক নিয়েও নানা মন্তব্য করে থাকেন সবসময়। সেই তালিকাতে নাম অনেকদিন থেকেই আছে গায়ক আদনান শামির।

২০১৬ সালে ভারতের নাগরিকত্ব নেওয়ার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়াতে তাকে বারবার আক্রমণ করা হয়। কিছুদিন আগেই পাকিস্তানের এক নেটিজেন আদনান শামিকে এই বিষয়ে নানা হুমকি দেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটিয়ে গতকাল অর্থাৎ ভারতের স্বাধীনতা দিবসের দিন আরও এক পাকিস্তানের নেটিজেন আদনানকে টুইট করে বলেন, “কাশ্মীর সমস্যা নিয়ে মুখ খুলতে।”

তিনি আরও লেখেন, “আদনান যদি তোমার দম থাকে তো টুইটারে কাশ্মীর সমস্যা নিয়ে মুখ খুলুন। তারপর দেখুন এই ভারত আপনার কী হাল করে।” তার পরক্ষণেই আদনান জানান, “নিশ্চয়ই মুখ খুলব, কাশ্মীর ভারতের অংশ। আপনারা দয়া করে এখানে নাক গলাতে আসবেন না।”

কার্যত শামির টুইটে সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় বয়ে গিয়েছে গতকাল থেকেই। মূলত পাকিস্তানের বাসিন্দা আদনান কাজের সূত্রে ভারতে আসেন। কিন্তু ২০১৫ সালের মে মাসে তার ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় পাকিস্তান সরকার সেটি পুননর্বিকরন করাননি।

তার জন্য ২০১৬ সালে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রীর সহায়তায় এদেশের নাগরিকত্ব পান আদনান। তারপর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়াতে তার উদ্দেশ্যে নানা কু-মন্তব্য মাঝে মাঝে ধেয়ে আসে।

গতকাল আদনান শামির জন্মদিন থাকাতে তিনি সোশ্যাল মিডিয়াতে ফ্যানেদের সঙ্গে কথাবার্তা বলছিলেন। আর সেইখানেই ঘটে এই বিপত্তি। কেন্দ্রীয় সরকারের কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপের নিয়মকে স্বাগত জানিয়েছেন আদনান। পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হওয়ার জন্য ভারত সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন আদনান।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ