ফটো গ্যালারি

মির্জা ফখরুল সাহেব কি দিয়ে গেছেন, শুধু বক্তৃতা করে গেছেন!

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন না হওয়া পর্যন্ত পাশে থাকবে সরকার: কাদের

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন না হওয়া পর্যন্ত পাশে থাকবে সরকার: কাদের \

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর মিরপুরে চলন্তিকা বস্তিতে (১৬ আগস্ট) অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তি‌নি ব‌লেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় যারা নিঃস্ব হয়েছেন পুনর্বাসন না হওয়া পর্যন্ত শেখ হাসিনার সরকার তাদের পাশে থাকবে।’সোমবার (১৯ আগস্ট) চলন্তিকার মোড়ে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত বস্তিবাসীর মাঝে ত্রাণ বিতরণের সময় তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এই ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় যতদিন পর্যন্ত আপনাদের সাহায্য দরকার আমরা করবো, পুনর্বাসন পর্যন্ত শেখ হাসিনার সরকার আপনাদের পাশে আছে; আমাদের সংসদ সদস্য ইলিয়াস মোল্লা আপনাদের পাশে থাকবেন। আপনারা নিজেদের অসহায় ভাববেন না, শেখ হাসিনা আপনাদের পাশে আছেন। আপনাদের পূনর্বাসন করা পর্যন্ত, ঘরবাড়ি নির্মাণ করা পর্যন্ত আমাদের পার্টি, আমাদের সরকার, আমাদের সংসদ সদস্য আপনাদের পাশে থাকবেন।

এ সময় তিনি বিএনপির সমালোচনা করে বলেন, যারা আজ সহায়-সম্বলহীন, তারা আজ কথা শুনতে চায় না। তারা সহায়তা চায়, পুনর্বাসন চায়। আমরা সেই ব্যবস্থাই করবো ইনশাল্লাহ। মির্জা ফখরুল ইসলাম সাহেব এখানে এসে বিষোদগার করে গেছেন। কি দিয়ে গেছেন, কি সাহায্য করে গেছেন? শুধু বক্তৃতা করে গেছেন!

বিএনপির রাজনৈতিক ব্যর্থতা তুলে ধরে তিনি বলেন, দেশের মানুষের আস্থা অর্জনে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে। তারা তাদের নেত্রীকে মুক্ত করতে দেড় বছরে দেড় মিনিটের জন্য আন্দোলন করতে পারেনি। তারা আদালতে ব্যর্থ, রাজপথে ব্যর্থ। এখন বিদেশি কূটনীতিকদের কাছে গিয়ে নালিশ করা ছাড়া আর কোনো উপায় পাচ্ছে না।

এ সময় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মাঝে শাড়ি ও শার্ট বিতরণ করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।এ সময় স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) ইলিয়াস মোল্লাসহ আওয়ামী লীগের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

গত শুক্রবার (১৬ আগস্ট) সন্ধ্যায় রাজধানীর মিরপুরে চলন্তিকা বস্তিতে আগুনে হাজারের বেশি ঘর পুড়ে যায়। আগুন লাগার পর থেকে প্রায় সারা রাত ফায়ার সার্ভিসের ২০টি ইউনিট কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এই ঘটনায় কয়েকজন আহত হলেও কোনো প্রাণহানি হয়নি।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ