ফটো গ্যালারি

স্বাস্থ্য অধিদফতরের দৈনিক প্রতিবেদনে

কমছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা, ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৪৪৬ জন হাসপাতালে

কমছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা, ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৪৪৬ জন হাসপাতালে \

এওয়ান নিউজ: সারাদেশে বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) সকাল ৮টা থেকে শুক্রবার (২৩ আগস্ট) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ৬৪ জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ১ হাজার ৪৪৬ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। চলতি বছরে এখন পর্যন্ত ৬১ হাজার ৩৮ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে ৫৪ হাজার ৯৫৬ জন রোগী সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ৬ হাজার ৩৫ জন রোগী। বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) এই সংখ্যা ছিল ৬ হাজার ১৪৭ জন।

ডেঙ্গু রোগ নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের দৈনিক প্রতিবেদনে শুক্রবার (২৩ আগস্ট) এ তথ্য জানানো হয়। রিপোর্টটিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সর্বমোট মৃত্যুর সংখ্যা বলা হয়েছে ৪৭ জন। রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) ৮০ টি সম্ভাব্য মৃত্যু পর্যালোচনা করে এই ৪৭ জনের ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের হিসাব অনুযায়ী, ২৪ ঘণ্টায় ঢাকার বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ৬৮৯ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হলেও ঢাকার বাইরে ৭৫৭ জন নতুন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

ঢাকার বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে চিকিৎসাধীন ৩ হাজার ৪১১ জন এবং ঢাকা শহরের বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে ২ হাজার ৬২৪ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন আছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা শহরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ডেঙ্গু রোগীদের মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) ১০১ জন, মিটফোর্ড হাসপাতালে ৭১ জন, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ২২ জন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ৪১ জন ভর্তি হয়েছেন।

এছাড়াও বিএসএমএমইউতে ৩৯ জন, রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে ১৮ জন, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৭০ জন, পিলখানা বিজিবি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২ জন, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ১৯ জন, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ৫০ জন রোগী, নিটোরে ৪ জন ও কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালে ৩ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন।

এছাড়াও ঢাকা শহরের বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে নতুনভাবে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন ২৪৯ জন রোগী। এদের মধ্যে হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ২০ জন, বারডেম হাসপাতালে ১১ জন, বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১২ জন, ধানমন্ডি ইবনে সিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৪ জন, কমফোর্ট নার্সিংয়ে ১ জন, স্কয়ার হাসপাতালে ১১ জন, মিরপুর ডেল্টা মেডিকেল কলেজে ৩ জন, ল্যাবএইড হাসপাতালে ৩ জন, সেন্ট্রাল হাসপাতালে ১৮ জন, হাই কেয়ার হাসপাতালে ৩ জন, হেলথ অ্যান্ড হোপ হাসপাতালে ১ জন, গ্রীন লাইফ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৬ জন, কাকরাইল ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে ২১ জন রোগী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন।

এছাড়াও খিদমা জেনারেল হাসপাতালে ২ জন, ইউনাইটেড হাসপাতালে ১৩ জন, শহীদ মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৭ জন, অ্যাপোলো হাসপাতালে ১২ জন, সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৩ জন, আদ-দ্বীন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৫ জন, বিআরবি হসপিটালস লিমিটেডে ২ জন, ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০ জন, আজগর আলী হাসপাতালে ৯ জন, উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৭ জন, বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ৩ জন, সালাউদ্দিন হাসপাতালে ১০ জন, পপুলার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৭ জন, উত্তরা ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ৩ জন ও আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১ জন ভর্তি হয়েছেন।

এছাড়া, ঢাকা বিভাগের জেলা শহরগুলোতে ২০৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১০৬ জন ও খুলনা বিভাগে ১৮৩ জন রোগী ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন। এছাড়াও রংপুর বিভাগে ২৮ জন, রাজশাহী বিভাগে ৬৩ জন, বরিশাল বিভাগে ১২৭ জন, সিলেট বিভাগে ১৯ জন রোগী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এছাড়াও ময়মনসিংহ বিভাগে ২৩ জন ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ