ফটো গ্যালারি

ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা সর্বনিম্ন পর্যায়ে এসেছে, ২৪ ঘণ্টায় ১১৭৯ জন ভর্তি

ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা সর্বনিম্ন পর্যায়ে এসেছে, ২৪ ঘণ্টায় ১১৭৯ জন ভর্তি \

নিজস্ব প্রতিবেদক: মাসখানেকের মধ্যে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি নতুন রোগীর সংখ্যা সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে এসেছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমারজেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী,শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে মোট এক হাজার ১৭৯ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এদের মধ্যে রাজধানীতে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭০ জন এবং ঢাকার বাইরে ৬০৯ জন ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। সারা দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে এখনও ডেঙ্গুর চিকিৎসা নিচ্ছেন ছয় হাজার ২৮৯ জন। তাদের মধ্যে ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তিন হাজার ৫১৮ জন। আর ঢাকার বাইরের হাসপাতালগুলোতে দুই হাজার ৭৭১ জন ভর্তি রয়েছেন।

গত জুনে ঢাকায় ডেঙ্গুর প্রকোপ দেখা দেওয়ার পর ব্যাপকতা বাড়ে জুলাইয়ে, সরকারি হিসাবেই সে সময় রেকর্ড ১৬ হাজার ২৫৩ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন।

অগাস্টের প্রথম সপ্তাহে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা আগের মাসের তুলনায় দ্বিগুণের বেশি বেড়ে যায়, ৭ অগাস্ট একদিনে সর্বোচ্চ দুই হাজার ৪২৮ জন ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। এই অবস্থা চলতে থাকে সপ্তাহখানেক- প্রতিদিনই দুই হাজারের বেশি মানুষ ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে যান।

ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যার রেখাচিত্রে অবনমন ঘটে ঈদের পরদিন ১৩ অগাস্ট। ওই দিন এক হাজার ২০১ জন হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর থেকে প্রতিদিন এই সংখ্যায় ওঠানামা চললেও তা দেড় হাজারের কাছাকাছি থাকে। শনিবারই ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা এগারশ’র ঘরে এলো।

গত ১ জানুয়ারি থেকে ২৩ অগাস্ট পর্যন্ত সারা দেশে মোট ৬২ হাজার ২১৭ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৫৫ হাজার ৮৮১ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এই সংখ্যা মোট আক্রান্ত রোগীর ৯০ শতাংশ।

এ বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মোট ৪৭ জনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তবে বিভিন্ন হাসপাতাল ও জেলার চিকিৎসকদের কাছ থেকে অন্তত ১৭৮ জনের মৃত্যুর তথ্য পেয়েছে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, নতুন ডেঙ্গু রোগীদের মধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ৭৪ জন, খুলনা বিভাগে ১৩৮ জন, রংপুর বিভাগে ২৪ জন, রাজশাহী বিভাগে ৫৭ জন, বরিশাল বিভাগে ১০৬ জন, সিলেট বিভাগে ৮ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ২৫ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ