ফটো গ্যালারি

নরসিংদীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী নিহত, অস্ত্রসহ আটক ৪

নরসিংদীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্ত্রাসী নিহত, অস্ত্রসহ আটক ৪ \

নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী মিঠুনের (৩৫) মৃত্যু হয়েছে। সে মাধবদী থানার জাকির হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় তার চার সহযোগীকে পিস্তল ও গুলিসহ গ্রেফতার করা হয়। আটকরা হলেন, হৃদয় (২২), মাইনুল (২৪), মেহেদি হাসান (২৫)। অন্যজনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। শুক্রবার (৩০ আগস্ট) দিনগত মধ্যরাতে মাধবদী শহরের টাঁটাপাড়া মহল্লায় এসব ঘটনা ঘটে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক আবদুল গাফফার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, পুলিশের তালিকাভুক্ত চিহ্নিত মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ী মিঠুনকে তার সহযোগী সোহেলসহ শুক্রবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের কাঞ্চন এলাকা থেকে আটক করা হয়। গতরাতে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে নামে পুলিশ। এসময় ওঁৎ পেতে থাকা মিঠুনের অন্যান্য সহযোগীরা ডিবি পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় পুলিশ পাল্টা গুলি ছুড়লে বেশ কয়েকজন পালিয়ে যায়। এতে ডিবি পুলিশের দুই সদস্যসহ আহত হয় সন্ত্রাসী মিঠুন। সহযোগী সন্ত্রাসীদের ছোড়া গুলিতে আহত মিঠুনকে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এসময় অন্যান্যদের ২টি বিদেশি পিস্তল, ১ টি পাইপগান ও ৮ রাউন্ড গুলিসহ গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় গোয়েন্দা পুলিশ। নিহত মিঠুনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় হত্যা, অস্ত্র, বিস্ফোরক ও মাদকের ডজন খানেক মামলা রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ