ফটো গ্যালারি

সরকার বুঝতে পারবে, আপিলের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি : ফারুকী

সরকার বুঝতে পারবে, আপিলের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি : ফারুকী \

বিনোদন প্রতিবেদক: মস্কো, সিডনি এবং মিউনিখ-এর পর এবার দক্ষিণ কোরিয়ার বুসান চলচ্চিত্র উৎসব-এ ডাক পেলো মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর চলচ্চিত্র ‘শনিবার বিকেল’। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন নির্মাতা নিজেই। সেন্সরবোর্ডে আপিল এখনও সরকারের সাড়া মিলছে না ছবি মুক্তির- বলে জানান এই নির্মাতা। তবু আশা নিয়ে ছুটছেন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে।

আগামী ৩-১৭ অক্টোবর পর্যন্ত অনুষ্ঠিতব্য বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে যোগ দিতে ৪ অক্টোবর বুসান যাচ্ছেন ফারুকী। প্রতিক্রিয়ায় ফারুকী বলেন, “বুসান এশিয়ার বড় উৎসবের একটি। এখানে আমাদের ছবির এশিয়ান প্রিমিয়ার হতে যাচ্ছে, তাই আমি অবশ্যই আনন্দিত। আমার জন্য বিশেষ করে বুসান অনেক নস্টালজিক কারণ এটা দিয়েই আমার উৎসবে যাওয়া শুরু হয়েছিলো। তাছাড়া, এবারে এখানকার তালিকায় বন্ধুদের ছবি আছে, কলিগদের ছবি আছে, মাস্টার ফিল্ম মেকারদের ছবি আছে। সবার সঙ্গে দেখা হবে, আড্ডা হবে এটা আনন্দের ব্যাপার।”

দেশে মুক্তি নিয়ে অনিশ্চয়তার মুখে থাকা ‘শনিবার বিকেল’ আন্তর্জাতিক উৎসবগুলোতে নিয়মিতই প্রশংসিত হচ্ছে। ফারুকী জানান, শুধু বুসানেই নয়, অনুষ্ঠিতব্য হংকং এশিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালেও প্রদর্শনের জন্য নির্বাচিত হয়েছে চলচ্চিত্রটি।

ইতিমধ্যেই মস্কো ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভালে দুটি ইনডিপেন্ডেন্ট জুরি পুরস্কার পেয়েছে ‘শনিবার বিকেল’। প্রদর্শিত হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার সিডনি ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভালেও। ‘সিডনি মর্নিং হেরাল্ড’র বিবেচনায় উৎসবের ‘হট লিস্টে’ স্থান করে নিয়েছে। সিডনির পর মিউনিখ ফিল্ম ফেস্টিভালেও প্রশংসিত হয় এটি।

কিন্তু গুলশান হামলার ঘটনাকে উপজীব্য করে নির্মিত চলচ্চিত্রটি দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে পারে-এমন আশঙ্কায় চলতি বছরের জানুয়ারিতে আটকে দেয় সেন্সর বোর্ড। তারপর নানা ধাপ পেরিয়ে চলচ্চিত্রটি মুক্তির লক্ষ্যে চূড়ান্ত আপিলের জন্যেও আবেদন করে নির্মাতা ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। কিন্তু এখনও সাড়া মেলেনি সরকারের- বলে জানান নির্মাতা।

এ প্রসঙ্গে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী বলেন, “আমরা আপিল করেছি। আশা করছি, সরকার বুঝতে পারবে, সরকার আমাদের ছবিটা মুক্তির ব্যাপারে অনুমতি দিবে। আমরা আপিলের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি।”

জাজ মাল্টিমিডিয়া, ছবিয়াল ও ট্যানডেম প্রোডাকশন প্রযোজিত চলচ্চিত্রটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন ফিলিস্তিনের অভিনেতা ইয়াদ হুরানি, অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা, জাহিদ হাসান, মামুনুর রশীদ ও কলকাতার অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়।

‘শনিবার বিকেল’-এর পর ফারুকী নির্মাণ করতে যাচ্ছেন তার পরবর্তী ছবি ‘নো ল্যান্ডস ম্যান’। চলচ্চিত্রটিতে অভিনয়ের জন্য ইতিমধ্যেই চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা নওয়াজ উদ্দিন সিদ্দিকী। ফারুকী জানান, বর্তমানে চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্য নির্মাণ, লোকেশন বাছাইসহ নানাবিধ নির্মাণ পূর্বপ্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ