ফটো গ্যালারি

আমৃত্যু দর্শক ভালোবাসায় সিক্ত থাকতে চাই: জন্মদিনে বললেন পপি

আমৃত্যু দর্শক ভালোবাসায় সিক্ত থাকতে চাই: জন্মদিনে বললেন পপি \

ইমরুল শাহেদ : ১০ সেপ্টেম্বর ছিল পপির জন্মদিন। এদিন তার ভক্ত এবং শুভানুধ্যায়ীরা ব্যক্তিগতভাবে ফুল উপহার দিয়ে, ফোনে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তবে লক্ষ্য করার বিষয় হলো, ফেসবুকে পপিকে নিয়ে যেভাবে হৈচৈ হয়েছে, এমনটা কাউকে নিয়ে হতে সচরাচর দেখা যায় না। পপির সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারে যাদের সঙ্গে কাজের অবসরে বা বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তিনি যেসব ছবি তুলেছেন, সেগুলোর কিছু কিছু তাদের অতীতের ঝাঁপি থেকে তুলে এনে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন। এর থেকে বুঝা যায় সকলের মধ্যে পপি এখনো যথেষ্ট জনপ্রিয় এবং অনেকেরই প্রিয় মানুষ। তবে অতীতে পপি যেভাবে ঘটা করে জন্মদিন পালন করতেন, এখন তা করেন না। পপির প্রিয় মানুষদের কারণে জন্মদিনটি অলক্ষ্যে যেতে দেওয়া হয়নি। পপি বলেছেন, এবারের জন্মদিনটি তার কাছে একটু ব্যতিক্রম। তিনি জন্মদিনের দিন কোনো কেক কাটেননি বলে জানালেন। তবে পরে তিনি জন্মদিনের অনুষ্ঠানটি সকলকে জানান দিয়ে পালন করবেন। কবে সেটা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি। পপি জানান, তার হাতে অনেক কাজ।

চলচ্চিত্রের বর্তমান পরিস্থিতিতে সব তারকার হাতেই কাজ কমে গেছে। একইভাবে পপির হাতেও চলচ্চিত্রের কাজ কম। কিন্তু টিভি নাটক, টেলিফিল্ম এবং ওয়েব সিরিজসহ অনেক কাজই আছে তার হাতে। জন্মদিন প্রসঙ্গে পপি বলেন, মানুষের ভালোবাসা ও সাপোর্টে আজ আমি পপি। জন্মদিনে সকলের শুভেচ্ছাবার্তা আমাকে সিক্ত করছে। আমি আবেগতাড়িত হচ্ছি। আমার মৃত্যুর পরেও যেন মানুষের এই ভালোবাসাটা অব্যাহত থাকে। এই ভালোবাসাই আমাকে আগামীতে আরও ভালো কাজের প্রেরণা যোগাচ্ছে। আমি মানুষের ভালোবাসার মর্যাদা রক্ষা করতে চাই কাজ দিয়ে।

খুলনার মেয়ে পপির মিডিয়াতে যাত্রা ১৯৯৫ সালে লাক্স-আনন্দ বিচিত্রা ফটোসুন্দরী প্রতিযোগিতার মাধ্যমে। চলচ্চিত্রে তার অভিষেক ঘটে ‘কুলি’ ছবিটির মধ্য দিয়ে। প্রথম ছবি দিয়েই দর্শকদের কাছে প্রিয় নায়িকা হয়ে ওঠেন পপি। এরপর একে একে প্রায় দেড়শরও বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন ওমর সানি, মান্না, রিয়াজ, শাকিব খান, ফেরদৌসদের মতো নায়কদের সঙ্গে। অভিনয়ের স্বীকৃতিস্বরূপ ‘কারাগার’, ‘মেঘের কোলে রোদ’ ও ‘গঙ্গাযাত্রা’ ছবির মাধ্যমে তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ আরো বেশকিছু ছবিতে পুরস্কার পেয়েছেন পপি।

মন্তব্য করুন

আরো সংবাদ